উখিয়ায় বিএনপির চেয়ারম্যান বহিস্কার

 

Gafur Chy 27-01-2016
আবদুর রহিম, উখিয়া
সীমান্তের ক্রাইম জোন হিসেবে খ্যাত পালংখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গফুর উদ্দিন চৌধুরীকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে। গত ২৬ জানুয়ারী এ সংক্রান্ত স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব শরীফা আহমেদ স্বাক্ষরিত পরিপত্রে জানা গেছে। যার স্মারক নং- ৪৬.০০.২২১৪,০১৭.২৭.০০২.১৫-৭৯, তারিখ: ২৬ জানুয়ারি ২০১৫ খ্রিঃ। উক্ত চেয়ারম্যান এর বিরুদ্ধে উখিয়া থানায় দায়েরকৃত জি.আর মামলা নং- ২৮৮/২০১৩, ষ্পেশাল ট্রাইব্যুনাল মামলা নং- ৭৪/২০১৪, উখিয়া থানার মামলা নং- ৩১, তাং- ১৮/১২/২০১৩, অভিযোগ পত্র নং- ৪২(১) ও একই মামলার অভিযোগপত্র নং ৪২(১), ১১/০৫/২০১৪ ইং তারিখ আদালত কর্তৃক অভিযোগ গৃহত হয়। উক্ত চেয়ারম্যান এর বিরুদ্ধে মামলা বিচারাধীন থাকায় তার দ্বারা কোন প্রকার ক্ষমতা প্রয়োগ জনস্বার্থের পরিপন্থি বলে সরকার মনে করায় স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন, ২০০৯ এর ধারা ৩৪(১) মোতাবেক সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করা হল। এ আদেশ অবিলম্বে কার্যকর এবং পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত বলবৎ থাকবে বলে পরিপত্র সূত্রে জানা গেছে। উল্লেখ্য, বিএনপির আর্শিবাদপুষ্ট চেয়ারম্যান গফুর উদ্দিন চৌধুরীর বিরুদ্ধে ইতিপূর্বে বিভিন্ন নাশকতা, রোহিঙ্গা সম্পৃক্ততা ও জঙ্গি তৎপরতা, চোরাচালানী সহ পার্শ্ববর্তী মিয়ানমার সীমান্তের বাসিন্দাদের হুন্ডির টাকা লেনদেনের অভিযোগ রয়েছে। এসব অভিযোগের পাহাড় মাথায় নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে উক্ত চেয়ারম্যান প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও সংশ্লিষ্ট আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা তার টিকিটিও ছুঁতে পারেনি। আসন্ন নির্বাচন নিয়ে তীক্ষè বুদ্ধি সম্পন্ন এ চেয়ারম্যান মাঝেমাঝে এলাকায় শব্দ বোমা ফাটিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষনাও দেন। তার এসব রাজনৈতিক দূর্বিসন্ধি বলে এলাকার সচেতন মহল মনে করেন। এ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মাঈন উদ্দিন মন্ত্রণালয় কর্তৃক জারীকৃত প্রজ্ঞাপন এখনো পর্যন্ত তার কার্যালয়ে আসেনি স্বীকার করে বলেন, প্রশাসনিক ভাবে এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে মন্ত্রণালয়ের যেকোন সিদ্ধান্তকে সরকার স্বাগত জানাবে। অভিযুক্ত গফুর উদ্দিন চেয়ারম্যান এর বহিস্কারাদেশ জারীর বিষয়টি তিনি নিশ্চিত করেন।

 
 
 

0 মতামত

আপনিই প্রথম এখানে মতামত দিতে পারেন.

 
 

আপনার মতামত দিন