চকরিয়ায় পরিবেশ রক্ষায় উদ্বুদ্ধকরণ সভায়-ডিএফও শাহ-ই-আলম

 

প্রকৃতিকে বাচিঁয়ে রেখে আগামী প্রজন্মের জন্যে সবুজ-শ্যামল-সুন্দর পৃথিবী বির্নিমান করতে হবে

এম.শাহজাহান চৌধুরী শাহীন,1937108_1020169828021976_3621299044707769193_n

কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো.শাহ-ই-আলম বলেছেন, বনাঞ্চলের সম্পদ ও বনভুমি রক্ষা করতে বনকর্মীদের একা সম্ভব নয়, তাই সকলকে প্রকৃতি রক্ষায় এগিয়ে আসতে হবে। এখানে পুলিশ ও উপজেলা প্রশাসন আমাদের সাথে আছে। তাই প্রত্যেক অনুষ্টানে প্রশাসনের প্রতিনিধি থাকা জরুরী। তিনি বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন ও ব্যাপক বন নিধনের ফলে অচিরেই এমন দিন আসবে যখন আমাদেরকে চাল ধুয়ে বসে থাকতে হবে সেইদিন রান্না করার লাকড়ি বনাঞ্চলে পাওয়া যাবেনা। তাই বনাঞ্চলে নির্বিচারে বৃক্ষ নিধন ও বনভূমি জবর দখলের প্রক্রিয়া রুখতে হবে। এই জন্য সবাই মিলে সহ-ব্যবস্থাপনার ভিত্তিতে বণ্যপ্রাণীর আবাসস্থল রক্ষা ও জাতীয় উদ্যানের উন্নয়ন করতে হবে। যাতে করে নতুন প্রজন্মের জন্যে একটি সুন্দর আগামী বির্নিমানে সবুজ-শ্যামল-সুন্দর পৃথিবী গড়া সম্ভব হয়।
রোববার সকালে কক্সবাজারের চকরিয়া উপচেলার খুটাখালীস্থ মেধাকচ্ছপিয়া জাতীয় উদ্দ্যানে “ সবুজ বন ও প্রকৃতি বাঁচাও” স্লোগানে ক্রেল প্রকল্পের (ক্লাইমেট রেজিলিয়েন্ট ইকুসিস্টেম এন্ড লাইভলিহুড্স) উদ্যোগে অনুষ্টিত উদ্বুদ্ধকরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
ক্রেল প্রকল্পের উপজেলা সাইট অফিসার আব্দুল কাইয়ুমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব মেধাকচ্ছপিয়া জাতীয় উদ্দ্যান সহ-ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি এসএম আবুল হোসেন। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের সহকারী বন সংরক্ষক মোহাম্মদ ইউসুফ; জনাব, কক্সবাজার ক্রেল প্রকল্পের সিসিপিএমও মোঃ আলম খান, খুটাখালী ইউপি চেয়ারম্যান মো. আবদুর রহমান, ব্যবস্থাপনা কমিটির সহ-সভাপতি বাহাদুর হক, সাধারণ সম্পাদক ও ফুলছড়ি রেঞ্জ কর্মকর্তা কাজী মোকাম্মেল কবির সাধারণ। অনুষ্টানে ক্রেল প্রকল্পের কর্মকর্তা, সিপিজি, ভিসিজি, পিএফ, বন সংরক্ষণ ক্লাবের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানে ক্রেল প্রকল্পের সাইট অফিসার আব্দুল কাইয়ুম বলেন, শুরু থেকে এখানে ক্রেল প্রকল্প বন ও জীববৈচিত্র্য রক্ষায় বিভিন্ন সচেতনতাূলক সভা, পরিবেশ-প্রতিবেশ সম্পৃক্ত করণে ইউনিয়ন ষ্ট্যান্ডিং কমিটির সভা জোরদারে সহায়তা করেন। সহ-ব্যবস্থাপনা কমিটির সাথে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের দক্ষতা বাড়াতে প্রশিক্ষণ প্রদান, প্রাকৃতিক সম্পদ রক্ষায় পাহারার ব্যবস্থা, বনায়ন সৃজন, জলবায়ু পরিবর্তন জনিত বিপদাপন্নতা নিরূপন ও অভিযোজন পরিকল্পনা তৈরি এবং গ্রাম পর্যায়ে বাস্তবায়ন, জ্বালানী সাশ্রয় পরিবেশ বান্ধব বন্ধু চুলা বিতরণ ও বন নির্ভরশীল এলাকার জনগনকে জলবায়ু সহিষ্ণু ও পরিবেশ বান্ধব টেকসই বিকল্প জীবিকায়নের লক্ষ্যে স্ট্রবেরী, কেপসিকাম, ড্রাগন ফল, টুপি তৈরি, বছরব্যাপী সবজি চাষ, হোটেল ম্যানেজম্যান্ট, খেলনা তৈরি, পোশাক তৈরি ইত্যাদি প্রশিক্ষনের ব্যবস্থা করা, পরিবেশ সম্পৃক্ত বিভিন্ন দিবস উদ্যাপন, অনুদান প্রকল্প পরিচালনা, নারীর অধিকার ও ক্ষমতায়ন এবং প্রাপ্য মর্যাদা প্রদান, স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসা-ক্লাবসহ সকল তরুন

 
 
 

0 মতামত

আপনিই প্রথম এখানে মতামত দিতে পারেন.

 
 

আপনার মতামত দিন