চকরিয়া থানার নতুন ভবন নির্মাণ কাজে অনিয়ম, পরিদর্শনে ডিআইজির অসন্তোষ

 

ch-64eeeeee0x416
আবদুল মজিদ, চকরিয়া :
চকরিয়া থানার নতুন ভবন নির্মাণ কাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। সোমবার বিকেলে নির্মিতব্য ভবনের উন্নয়ন কাজ সরেজমিন পরিদর্শনে এসে কাজের গুনগত মান ও ধীরগতি নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন পুলিশ হেড কোয়ার্টাসের ডিআইজি (অর্থ) মিলি বিশ্বাস। ওইসময় তিনি বলেন, সরকারি টাকা বরাদ্ধে নির্মাণ কাজে ঠিকাদারী প্রতিষ্টান অনিয়মের আশ্রয় নিয়ে নিন্মমানের ইট, বালি ও পাথর ব্যবহার করছে। এসব নির্মাণ সামগ্রীর গুনগত মান ভাল নেই। দেখে মনে হচ্ছে, ঠিকাদারী প্রতিষ্টান যেনতেন ভাবে কাজ শেষ করে বিল উত্তোলনের জন্য বসে আছে। তা হবেনা। শর্তাবলী অনুযায়ী কাজ বুঝে নিয়েই কেবল বিল ছাড় দেওয়া হবে। সুত্র জানায়, বাংলাদেশ পুলিশের অর্থায়নে কক্সবাজার গণপূর্ত বিভাগ প্রায় ৮ কোটি টাকা প্রাক্কলিত ব্যয় নির্ধারণ করে চুর্তথ তলা বিশিষ্ট নতুন থানা ভবনটি নির্মাণের কাজটি শুরু করেন।
পরির্দশনকালে তার সাথে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার সদর সার্কেলের সহকারি পুলিশ সুপার ছত্রধর ত্রিপুরা, কক্সবাজার গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী নুরুল আমিন মিয়া, চকরিয়া থানার ওসি মো.জহিরুল ইসলাম খাঁন, ওসি তদন্ত মো.কামরুল আজম, গণপূর্ত বিভাগের সহকারি প্রকৌশলী আবদুল কুদ্দুছ, ঠিকাদারী প্রতিষ্টান ডেলটা ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের পরিচালক মোহাম্মদ আইয়ুব।
কক্সবাজার গণপূর্ত বিভাগের সহকারি প্রকৌশলী (এসও) আবদুল কুদ্দুছ বলেন, ঠিকাদারী প্রতিষ্টান ডেলটা ইঞ্জিনিয়ারিং প্রায় ৬ কোটি টাকা ব্যয়ে থানা ভবন নির্মাণ কাজটি পেয়ে ২০১৫ সালের মার্চ মাসে নির্মাণ কাজ শুরু করেন। ৬ষ্ঠ তলার ফাউন্ডেশন দেওয়া হলেও ভবন নির্মাণ হবে চতুর্থ তলা পর্যন্ত। বর্তমানে তৃতীয় তলা পর্যন্ত কাজ শেষ হয়েছে। কাজের ডিজাইন পরিবর্তন হওয়ায় বরাদ্ধ আরো দুই কোটি টাকা বেড়ে এখন ৮ কোটি টাকা হয়েছে। কাজ সমাপ্ত হবে ২০১৭ সালের জুন মাসে।
কাজের অনিয়ম ও পরিদর্শনে ডিআইজির অসন্তোষ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ঠিকাদারী প্রতিষ্টানের মালিক মোহাম্মদ আইয়ুব বলেন, কাজ সঠিক না হলে বা নিন্মমানের সামগ্রী ব্যবহার করা হলে তাকে (ডিআইজি) বলেন কাজটি বন্ধ করে দিতে। কিন্তু তিনি তা করবেনা। কারন টাকা দিলেই তো সব ঠিক হয়ে যাবে। পাল্টা প্রশ্ন করে তিনি বলেন, কাজের ভালমন্দের ব্যাপারে গণপূর্ত বিভাগের প্রকৌশলীরা ভাল বুঝবেন। এনিয়ে আপনাদের (সাংবাদিক) কথা বলার প্রয়োজন কি।

 
 
 

0 মতামত

আপনিই প্রথম এখানে মতামত দিতে পারেন.

 
 

আপনার মতামত দিন