জাতির উদ্দেশে ভাষণে সু চি: রোহিঙ্গা সংকটে আন্তর্জাতিক তদন্তকে ভয় পায় না মিয়ানমার

 


রোহিঙ্গা সংকটে বিশ্ব সম্প্রদায়ের উদ্বেগে মিয়ানমার বিচলিত নয় বলে জানিয়েছেন দেশটির স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চি।

মঙ্গলবার জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে এমনটা বললেন তিনি।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারের নাইপিদো-তে দেয়া ভাষণে সু চি বলেন, রোহিঙ্গারা পুলিশের ওপর হামলা চালিয়েছে। তবে সরকার শান্তি বজায় রাখতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।

অং সান সু চি বলেন, রাখাইন থেকে মুসলিমরা কেন পালিয়ে বাংলাদেশে যাচ্ছে তা খুঁজে বের করতে চাই। আমরা সব মানুষের দুর্ভোগ গভীরভাবে অনুভব করি। রাখাইনে শান্তি, স্থিতিশীলতা পুনরুদ্ধারে কাজ করছি। রাখাইনে বাস্তুচ্যুতদের সহায়তা দেয়া হচ্ছে।

পরিস্থিতি দেখার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে রাখাইন পরিদর্শনে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন সু চি। এ ব্যাপারে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। একই সঙ্গে জানান, আনান কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়নে তার সরকার কাজ করবে।

ইউনাইটেড ন্যাশনস চিলড্রেন ফান্ড (ইউনিসেফ) এর মতে, মিয়ানমারে ২৫ আগস্ট সবশেষ সহিংসতা শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত আনুমানিক চার লাখ রোহিঙ্গা তাদের বাড়িঘর ছেড়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছেন। এ শরণার্থীদের মধ্যে প্রায় ৬০ শতাংশই শিশু।

বিভিন্ন গণমাধ্যম বলছে, মিয়ানমারে সহিংসতায় পুরুষরা যেমন হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন তেমনি নারীরা হয়েছেন ধর্ষণের শিকার। অনেক নারী আছেন যাদের ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে।

মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা শরণার্থী রোহিঙ্গা নারীদের একটা বড় অংশ দেশটির সেনাবাহিনীর হাতে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন।

পালিয়ে আসা পরিবারগুলো বলছে, অনেকে ধর্ষণের পর হত্যার শিকারও হয়েছেন।

 
 
 

0 মতামত

আপনিই প্রথম এখানে মতামত দিতে পারেন.

 
 

আপনার মতামত দিন