টেকনাফে উন্নয়ন মেলায়৩৭ টি স্টল বিভিন্ন বিষয়ে সরাসরি তথ্য সেবা দিচ্ছে

 

টেকনাফে তিন দিনব্যাপী উন্নয়ন মেলা- ২০১৮ উদ্বোধন করা হয়েছে। মেলা উপলক্ষে আলোচনা সভা ও র‌্যালীর আয়োজন করা হয়। এছাড়া উপজেলা পরিষদ চত্বরে প্রশাসনিক, এনজিও, ব্যাংকসহ বিভিন্ন দপ্তরের ৩৭ টি স্টল বসানো হয়েছে।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদ হোসেন ছিদ্দীকির সভাপতিত্বে ও মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নুরুল আবছারের সঞ্চালনায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন টেকনাফ পৌর মেয়র হাজী মোঃ ইসলাম, উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান মাওঃ রফিক উদ্দিন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান তাহেরা আকতার মিলি, টেকনাফ পৌর আলওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ আলম বাহাদুর, সহকারী কমিশনার (ভূমি) প্রনয় চাকমা। এছাড়াও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, পৌর কাউন্সিলরবৃন্দ, শিক্ষক-শিক্ষিকা, শিক্ষার্থীরা ও মিডিয়াকর্মীগণ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদ হোসেন ছিদ্দীকি ও অতিথিবৃন্দ ফিতা কেটে ৩ দিনব্যাপী উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন ঘোষণা করেন। পরে উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করেন তারা। টেকনাফ উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আয়োজিত মেলায় সূর্য্যরে হাসি ক্লিনিক, টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, ইসলামিক ফাউন্ডেশন, বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস, এ্যাকলাব, উপজেলা নির্বাচন অফিস, উপজেলা প্রাণী সম্পদ অফিস, উপজেলা সমাজ সেবা অফিস, যুব উন্নয়ন অফিস, জন স্বাস্থ্য প্রকৌশলী অধিদপ্তর, পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর, টেকনাফ পৌরসভা, উপজেলা ভূমি অফিস, টেকনাফ উপজেলা পরিষদ, অর্থ বিভাগ, উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তর, বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রন, ফায়ার সার্ভিসসহ ৩৭ টি স্টল বিভিন্ন বিষয়ে সরাসরি তথ্য সেবা দিচ্ছে। মেলায় স্থানীয় উন্নয়নমূলক চিত্র তুলে ধরা হচ্ছে।

এদিকে দায়সার ভাবে উপজেলা প্রশাসন মেলার আয়োজন করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয় জনসাধারন। আলোচনা সভায় উপস্থিত অতিথি ও শ্রোতাদের জন্য পর্যাপ্ত চেয়ারের ব্যবস্থা, উপজেলা ফটকের গেইট ও উপজেলা পরিষদের স্টলে ব্যানার না টাঙ্গানোসহ বিভিন্ন ব্যর্থতার চিত্র তুলে ধরে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন টেকনাফ পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মোঃ আলম বাহাদুর। তিনি বলেন, দেশ নেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নকে মানুষের দৌরগোড়ায় পৌঁছে দিতে মেলার আয়োজন করা হয়। অথচ সেই জনগনের জন্য বসার স্থান করা হয়নি। এতে সাধারন মানুষের কাছে উন্নয়নের বার্তা কিভাবে পৌঁছবে।

 
 
 

0 মতামত

আপনিই প্রথম এখানে মতামত দিতে পারেন.

 
 

আপনার মতামত দিন