টেকনাফে সন্ত্রাসীদের ভয়ে বদু বিবি এখন ঘরভিটাছাড়া

 

1(1)
টেকনাফ প্রতিনিধি
কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার সদর ইউনিয়নের বড় হাবির পাড়া এলাকায় স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তি ও স্বরাস্ট্রমন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত আসামীগণ কর্তৃক জমি দখলের চেষ্টায় ব্যর্থ্য হয়ে অবশেষে এক মহিলাকে ইয়াবা দিয়ে মামলায় জড়ানোর চেষ্টা করে যাচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই নিরীহ মহিলা জমি দখলে বাধা দিলে ওই প্রভাবশালী ব্যক্তিরা ভয়ভীতি দেখিয়ে তাঁদের বিভিন্নভাবে হুমকি ও ধমকি দিয়ে আসছে। যার কারণে স্বপরিবার এখন ঘরহারা হয়ে খোলা আকাশের নিচে দিনাতিপাত করছে। এদিকে স্থানীয়রা জানিয়েছেন, নিরীহ লোকজনের বসত ভিটার জমি জবরদখল সহ বিভিন্ন অপকর্ম করে আসছিলেন তারা। এলাকায় জমির মূল্য বেড়ে যাওয়ায় ভূমিদস্যু ও তাদের অন্য সহযোগীরা গরীব ও অসহায় মানুষের জমি কেড়ে নিচ্ছে। প্রতিনিয়িত তারা বদু বিবিসহ স্বপরিবারকে জানে মেরে ফেলবে বলে আরও বিভিন্ন ধরনের হুমকি দিয়ে আসছে। অন্যদিকে এই জমি দখলকে কেন্দ্র করে গত ৬.১১.২০১২ ইংরেজী তারিখ আসামীগন বাদীকে বাড়ীতে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মারার চেস্টা করলে পরে তাদের সাত জনের জন্য ২০১২ সালে মামলা হলে সেখান থেকে ১. সৈয়দ আহাঃ পিতা নুরুজ্জামান ২.নজির আহাঃ পিতাঃ অজ্ঞাত ৩. ইউনুচ পিতাঃ আঃ শুক্কুর ৪. মোহাঃ লালু ৫. আঃ শুক্কুর পিতা মৃত আঃ সালাম,সর্বসাং মেীলভী পাড়া ও বড় হাবির পাড়া আসামীরা আটক হয়ে তারা বর্তমানে জেলে আছে। পরবর্তীতে জীবনের নিরাপত্তা যখন কোথাও পাচ্ছেনা সে মুহুর্তে বদু বিবি গত ৮.৯.২০১৪ ইংরেজী তারিখ আবার সবার জন্য টেকনাফ থানায় মামলা করে যার মামলা নং জি আর ৭৪৮। মামলার বাকী দুইজন কোর্টে হাজিরা না দেওয়া পলাতক আসামী রশিদ আহমদ পিতা মৃত নজির আঃ এবং মোহাঃ আলী প্রঃ গামছা আলী সাং বড় হাবির পাড়ার বাসিন্দা এখন বদু বিবির পরিবারের সদস্যদের যেকোন মুহুর্তে মেরে ফেলবে বলে হুমকি দিয়ে আসছে। এভাবে কি তারা পার পেয়ে যাবে? এসব অভিযোগ সংশ্লিষ্ট দপ্তরে করে ও কোন প্রতিকার পাচ্ছেনা অসহায় বদু বিবি। অবশেষে তাদের সব চেস্টা ব্যর্থ্য হলে আসামীরা এখন তাদেরকে বিভিন্নভাবে হয়রানী করে আসতেছে যার কারণে এখন তারা ঘরছাড়া। সন্ত্রাসীরা ইয়াবা গডফাদার এবং ভূমিদস্যু প্রভাবশালী প্রকৃতির হওয়ায় এলাকাবাসীও তাদের বিরুদ্ধে কথা বলতে সাহস পাচ্ছে না। এমতাবস্থায় বদু বিবির এহেন করুণ জীবনে কেউ এগিয়ে আসছেনা। সে অচিরেই এর সুষ্টু বিচার চেয়ে তিনি ও তার সহ-পরিবারের জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে ও হুমকি দেওয়া বাকী পলাতক ব্যক্তিগুলোকে আইনের আওতায় এনে সঠিক বিচারকরত সকল প্রকার প্রশাসনসহ সচেতন মহল ও উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। #########

 
 
 

0 মতামত

আপনিই প্রথম এখানে মতামত দিতে পারেন.

 
 

আপনার মতামত দিন