টেকনাফ কাটাবনিয়ায় মাও: মনির নেতৃত্বে জমি দখল করতে হামলা: আহত- ৩

 

বিশেষ প্রতিবেদক []টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের কাটাবনিয়া এলাকার দীর্ঘদিনের ভোগদখলীয় বসতভিটা জবরদখল নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। দীর্ঘদিন ধরে প্রতিবেশী প্রভাবশালী ভূমিদস্যু হওয়ায় এ জমির উপর লেলুপ দৃষ্টি পড়ে।
সাবরাং কাটাবনিয়া এলাকার লালু বিবি দীর্ঘ ৪৫ বৎসর যাবত তার জমিতে বসবাস করে আসছিল। জমির মালিকানা দাবী নিয়েদুই পক্ষের মধ্যে রশি টানাটানি চলে। এমনকি স্থানীয়ভাবে সালিশী ও বিচার কার্যক্রমে অসহায় এতিম লালুবিবি পক্ষের জমির রায় দিলে প্রতিপক্ষ ভূমিদস্যুরা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। পরে উপায়ন্তর না দেখে ভূমিদস্যুরা তার বসতভিটার রাস্তার পর্যন্ত বন্ধ করে দেয়। ৫২ কড়া সরকারী খাস জমি মালিকানা দাবী নিয়ে লালু বিবি ও মাওঃ মনির গং এর মধ্যে দীর্ঘদিন যাবৎ বিরোধ চলে আসছিল। এ বিরোধ মিমাংসা করে দিতে টেকনাফ উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আহমদ স্থানীয় জাফর মেম্বারকে নির্দেশ দিয়েছিল। কিন্তু এ পর্যন্ত বিচারটি ঝুলন্তবস্থায় পরিস্থিতি ঘোলাটে হয়ে যায়। এদিকে ভূমিদস্যু মাওঃ মুনির গং দীর্ঘদিনের ভোগ দখলীয় বসতভিটা থেকে এতিম লালু বিবি (৫০) কে উচ্ছেদ করতে মরিয়া হয়ে উঠে। কেননা কাটাবনিয়া এলাকায় সরকারীভাবে অর্থনৈতিক অঞ্চল করার উদ্যোগ নিলে হু হু করে বাড়ছে জায়গা জমির দাম । ফলে উক্ত ভূমিদস্যু মাওঃ মুনির গং বিরোধপূর্ণ জমি দখলে মরিয়া হয়ে পড়ে। জুমাবার ১২ টায় মাওঃ মুনিরের নেত্বত্বে দিলু, বশির, সোহেল, জিয়াবুল, মাদ্রাসার বার্মাইয়া ছাত্রসহ ১০/১১ জন সন্ত্রাসীরা লালু বিবির বাড়ীতে হামলা চালায়। এতে ওদের হামলায় লালু বিবিসহ ৪জন আহত হয়। আহতরা হচ্ছেন, লালু বিবি (৫০), রহমত উল্লাহ (৮), হাজেরা (১৫) ও জাইতুল্ল্যাহ (১৮) আহতদের টেকনাফ হাসপাতালে ভর্তি করলে গুরুত্বর আহত লালু বিবিকে কক্সবাজার হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। তার বাম হাত সন্ত্রাসীরা ভেঙ্গে ফেলে। এ ব্যাপারে টেকনাফ মডেল থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

 
 
 

0 মতামত

আপনিই প্রথম এখানে মতামত দিতে পারেন.

 
 

আপনার মতামত দিন