টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌপথ অতিরিক্ত যাত্রী ওঠানোয় জাহাজকে জরিমানা

 

নুরুল হোসাইন,টেকনাফ []

ধারণক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী তোলায় আবারও পর্যটকবাহী জাহাজ থেকে নামিয়ে আনা হয়েছে দুই শতাধিক পর্যটককে। কক্সবাজারের টেকনাফ-সেন্ট মার্টিন নৌপথে চলাচলকারী পর্যটকবাহী জাহাজ ‘এমভি পরিজাত’ নামের একটি জাহাজকে ধারণক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী ওঠানোয় ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

আজ রোববার সকাল নয়টার দিকে এমভি পরিজাত টেকনাফের দমদমিয়া ঘাট থেকে যাত্রী তুলে সেন্ট মার্টিনের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এ সময় ধারণক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী ওঠানোর খবর পেয়ে টেকনাফ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) প্রণয় চাকমার নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে এ জরিমানা আদায় করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক হাকিম প্রণয় চাকমা বলেন, টেকনাফ-সেন্ট মার্টিন নৌপথে কেয়ারি সিন্দাবাদ, কেয়ারি ক্রুজ অ্যান্ড ডাইন, গ্রিনলাইন-১, এসটি শহীদ সুকান্ত বাবু, এলসিটি কুতুবদিয়া, এসটি খিজির-৮, এমভি পরিজাতসহ সাতটি জাহাজ যাত্রী পরিবহন করে আসছে। এর মধ্যে ধারণক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী ওঠানোয় এমভি পরিজাত জাহাজ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, ধারণক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী ওঠানোয় দুই শতাধিক পর্যটককে নামিয়ে আনা হয় এবং নামিয়ে আনা পর্যটকদের টিকিটের টাকা ফেরতের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

গতকাল শনিবার অতিরিক্ত পর্যটক বহনের দায়ে এলসিটি কুতুবদিয়া ও এসটি খিজির-৮ নামের দুটি জাহাজকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এর আগে গত মঙ্গলবার এলসিটি কুতুবদিয়াকে এক লাখ টাকা এবং বুধবার এসটি শহীদ সুকান্ত বাবু জাহাজ কর্তৃপক্ষকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছিল।

 
 
 

0 মতামত

আপনিই প্রথম এখানে মতামত দিতে পারেন.

 
 

আপনার মতামত দিন