টেকনাফ স্থল বন্দরে হরতাল-অবরোধে কোন প্রভাব পড়েনি

 

Teknaf-bondor-pic_15.01.15-80ewrer0x418

বিএনপিসহ ২০ দলের লাগাতার অবরোধ ও হরতালে টেকনাফ স্থল বন্দরে কোন প্রভাব পড়েনি। ১৫ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার টেকনাফ স্থল বন্দর পরিদর্শনে বন্দরের পন্য উঠা-নামাসহ যাবতীয় কর্মকান্ড স্বাভাবিকভাবে চলতে দেখা গেছে। এছাড়া গত ৬ জানুয়ারী থেকে সারাদেশে অবরোধ চললেও এর কোন প্রভাব এ বন্দরে পড়েনি।
টেকনাফ স্থল বন্দরের ব্যবসায়ী ও সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানা যায়, ব্যবসায়ীদের মাঝে আশংকা থাকলেও আমদানী-রপ্তানীসহ যাবতীয় ব্যবসায়ীক কার্যক্রম সম্পুর্ন স্বাভাবিক রয়েছে। যথারীতি মিয়ানমার থেকে আসা পন্য স্বাভাবিকভাবে বন্দরে খালাস হওয়ার পাশাপাশি রপ্তানী প্রক্রিয়াও স্বাভাবিক রয়েছে। তবে ব্যবসায়ী ও পরিবহন শ্রমিকদের মাঝে উদ্বেগ লক্ষ্য করা গেছে। এরমধ্যেও বৃহস্পতিবার বিকালে আমদানী পন্য বোঝাই ৫৩ টি ট্রাক টেকনাফ স্থল বন্দর ছেড়েছে বলে জানিয়েছেন স্থল বন্দর পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান ইউনাইটেড ল্যান্ড পোর্ট এর ডেপুটি ম্যানেজার আনোয়ার হোসেন।
তেমনিভাবে বন্দরের রাজস্ব আয়ের পরিমান ও স্বাভাবিক রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থল বন্দর শুল্ক কর্মকর্তা নুরে আলম। তিনি জানান ১৫ জানুয়ারী পর্যন্ত বন্দর শুল্ক বিভাগ ২ কোটি টাকার রাজস্ব আয় করেছে। এসময়ের মধ্যে মিয়ানমার হতে প্রায় ৫ কোটি টাকার পন্য আমদানী ও পৌনে ১ কোটি টাকার পন্য রপ্তানী করছে স্থল বন্দরের ব্যবসায়ীরা।
টেকনাফ স্থল বন্দর সিএন্ডএফ এসোসিয়েশনের সাধারন সম্পাদক এহেতেশামুল হক জানান, বন্দরের ব্যবসা বানিজ্য স্বাভাবিক গতিতে চললেও আমদানী পন্য ট্রাকে দেশের বিভিন্ন স্থানে পরিবহনের সময় পথিমধ্যে অবরোধের কারনে কোন দূর্ঘটনা ঘটে কিনা তা নিয়ে উদ্বেগের মধ্যে থাকতে হয় ব্যবসায়ীদের।
স্থল বন্দরের আমদানীকারক এমএ হাশেম সিআইপি জানান, অবরোধে পণ্য বোঝাই ট্রাক এ পর্যন্ত হামলা অথবা কোন দূর্ঘটনায় না পড়লেও আশংকার মধ্যে থাকতে হয়।

 
 
 

0 মতামত

আপনিই প্রথম এখানে মতামত দিতে পারেন.

 
 

আপনার মতামত দিন