মেহেদির রঙ না মুছতেই পরকীয়ার বলি নববধূ

 

uytutyu

স্বামীর পরকীয়ায় বিয়ের মাত্র চার মাসের মধ্যেই ফিকে হয়ে গেছে মাদারীপুরের শিবচরের নববধুর মেহেদির রঙ। ভাবীর সঙ্গে পরকীয়ার জেরে নববধূ লাভলীকে হত্যা করে পালিয়েছে স্বামীসহ শশুর বাড়ির লোকজন।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় লাভলীর মৃতদেহের উদ্ধারের পর বিভিন্ন অংশে অসংখ্য আঘাতের চিহ্ন থাকার কথা স্বীকার করে এটিকে নিশ্চিত হত্যাকাণ্ড বলে ধারণা করছে পুলিশ।

সরেজমিনে জানা যায়, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে জেলার শিবচরের সন্ন্যাসীরচর ইউনিয়নের আবু আলী বেপারির সুন্দরী মেয়ে লাভলী আক্তার (১৯) প্রেমের সূত্র ধরে পাশ্ববর্তী খাসচর বাচামারা গ্রামের মৃত আব্দুল জলিল মৃধার ছেলে একরাম মৃধার সঙ্গে ঘর ছাড়ে।

বিয়ের পরই লাভলী বুঝতে পারে তার স্বামীর সঙ্গে বড় ভাবী প্রবাসী ভাইয়ের স্ত্রী জুলেখা বেগমের পরকীয়ার সম্পর্ক রয়েছে। এ নিয়ে গত ১৫ দিন আগেও লাভলী ঝগড়া করে বাবার বাড়িতে চলে যায়।

পরে একরাম বুঝিয়ে লাভলীকে বাড়িতে নিয়ে আসে। তারপরও বিষয়টি থামেনি। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় লাভলীর বাবার করা অভিযোগের ভিত্তিতে তার শশুর বাড়ি থেকে লাভলীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। লাভলীর মুখ, হাত, পাসহ শরীরজুড়ে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। লাভলীর শ্বশুরবাড়ির সবাই পলাতক রয়েছেন।

শিবচর থানার ওসি বেলায়েত হোসেন, পরিদর্শক (তদন্ত) শাজাহান মিয়া ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ব্যাপারে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

 
 
 

0 মতামত

আপনিই প্রথম এখানে মতামত দিতে পারেন.

 
 

আপনার মতামত দিন