সেন্টমার্টিন দ্বীপে সাড়ে ৩ কেজি গাঁজা উদ্ধার

 

হাবিব খান, সেন্টমার্টিন []gagadeee
সেন্টমার্টিন দ্বীপে সাড়ে ৩ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত গাজাগুলো ইউপি চেয়ারম্যান নুর আহমদ এর উপস্থিতিতে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে।

জানা যায, গত শনিবার সন্ধ্যায় টেকনাফ থেকে আসা সার্ভিস ট্রলারের যাত্রী থেকে সাড়ে তিন কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। তবে সার্ভিস ট্রলারটি টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিন আসতে রাত হওয়ার কারনে গাঁজা ব্যবসায়ীরা সুযোগ নেওয়ার চেস্টা করছিল।

জানা যায়, বোট থেকে নেমে এক ব্যক্তি বাড়ির উদ্দ্যেশে রওয়ানা দেয়। পথিমধ্যে ঘাটের ইজারাদার মোহাম্মাদ আয়াছ টোল নিতে গিয়ে অন্ধকারে ব্যাগটি দেখার জন্য চাইলেই ব্যাগটি ফেলে দিয়ে অন্ধকারে দৌঁড়ে পালিয়ে যায় গাজা বহনকারী লোকটি । পরে ব্যাগ খুলে দেখা যায় এক ব্যাগ গাজা । পর্যটকদের দ্বীপে আগমন বৃদ্দি হওয়ায় দ্বীপে মদ,গাঁজা ও বিভিন্ন নেশাজাতীয় দ্রব্যের ব্যবহার বেড়েই চলেছে যা দ্বীপবাসীকে ভাবিয়ে তুলেছে। প্রশাসন তীক্ষ্ম দৃস্টি না রাখলে দ্বীপের পরিবেশ নিয়ন্ত্রন রাখা কঠিন হয়ে দাড়াবে বলে মনে করছেন দ্বীপ বাসী । পরে উদ্বারকৃত গাজা সেন্টমার্টিন ইউপি চেয়ারম্যান নুর আহমদ, ইউপি সদস্য আব্দুর রব, হাবিব খান ও রশিদ আহমদের উপস্থিতিতে বাজারের জেটি সংলগ্ন নারিকেল জিনজিরা রেস্টুরেন্টের সামনে গাঁজা গুলো আগুন দিয়ে পুড়িয়ে নস্ট করা হয়।

 
 
 

0 মতামত

আপনিই প্রথম এখানে মতামত দিতে পারেন.

 
 

আপনার মতামত দিন