আপত্তিকর অবস্থায় ধরা, ভাতিজাকে নিয়ে হানিমুনে চাচি

 

চাচির সঙ্গে অন্তরঙ্গে লিপ্ত থাকা অবস্থায় ভাতিজাকে আটক করেছে এলাকাবাসী। ঘটনানি ঘটেছে ধামরাই উপজেলার সোমভাগ ইউনিয়নের ডাউটিয়া গ্রামে। মঙ্গলবার (০২ মার্চ) প্রেমের টানে ভাসুরের ছেলের হাত ধরে প্রকাশ্যে ঘর ছেড়েছেন দুই সন্তানের জননী আপন চাচি।

ওই গৃহবধূর প্রথম স্বামী মো. আব্দুল আলীম জানিয়েছেন, বিমানে চড়ে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে হানিমুন করতে গেছেন তার স্ত্রী ও ভাতিজা। এদিকে, তিনি নিজের স্ত্রী ও তার ভাতিজার বিরুদ্ধে ধামরায় থানায় জিডি করেছেন।

পরিবার ও স্থানীয়সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার (০২ মার্চ) লোকলজ্জা আর সামাজিক বিচার সালিশের ভয়ে তারা একে-অপরের হাত ধরে প্রকাশ্য দিবালোকে বাড়ি ছেড়ে চলে যান। এর আগে সোমবার সকালে আপত্তিকর অবস্থায় পরিবারের সদস্যদের কাছে ধরা পড়লে ফাঁস হয় পরকীয়ার ঘটনা। সেসময় তাদের ঘরে বন্দি করে রাখা হয়। পরদিন দুজনে বের হয়ে যান বাড়ি থেকে।

এ বিষয়ে ওই নারীর স্বামী আব্দুল আলীম জানান, ২০০৯ সালে কাবিন রেজিস্ট্রি মূলে বিয়ে করেন তাকে। দুটি সন্তানসহ তাকে রেখে এমনকি তালাক না দিয়েই পরকীয়া প্রেমিককে গোপনে বিয়ে করেছেন বলেও জানান তিনি।

এ বিষয়ে সানোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আজাহার আলী জানান, ওই নারীর পিতা-মাতা তার কাছে আসলে তিনি ঘটনাটি জানতে পারেন। তারা বাড়ি ফিরে না আসা পর্যন্ত কোনও বিহিত করার উপায় নেই বলেও জানান ওই ইউপি চেয়ারম্যান

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ