ইয়াবা ও নগদ টাকাসহ রহিম গ্রেপ্তার

12963760_1745754645696234_1058262288613223149_n
বিজিবি টেকনাফ সদর ইউনিয়নের লেঙ্গুরবিলে অভিযান চালিয়ে নগদ টাকা ও ইয়াবাসহ পাচারকারী আবদুর রহিমকে আটক করেছে। এব্যাপারে টেকনাফ মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। টেকনাফস্থ বিজিবি সদর দপ্তর থেকে প্রেরিত প্রেস ব্রিফিংয়ে বলা হয় “২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের ব্যাটালিয়ন সদরে কর্মরত নম্বর-৫৩৪৮৬ হাবিলদার হাওলাদার শাহজাহান এর নেতৃত্বে একটি বিশেষ টহল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ৪ এপ্রিল দুপুরে জানতে পারে যে, টেকনাফস্থ লেঙ্গুরবিল এলাকায় মোঃ আব্দুর রহিমের বসত বাড়িতে ইয়াবা ক্রয়-বিক্রয়ের জন্য জমা করা হয়েছে। উক্ত সংবাদ প্রাপ্তির পর উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করে উক্ত ব্যক্তির বসত বাড়ি ঘেরাও করে। তখন উক্ত বসত বাড়ি থেকে একজন লোক দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে টহল দলের অক্লান্ত চেষ্টায় উক্ত ব্যক্তিকে আটক করতে সক্ষম হয়। তখন ঘটনাস্থলে উপস্থিত বেসামরিক ব্যক্তির উপস্থিতিতে ধৃত আসামীর বসত বাড়ি তল্লাশী করে কাঠের আলমারীর ভিতর একটি প্যাকেট ও বাংলাদেশী নগদ টাকা পাওয়া যায়।
ঘটনাস্থলে বেসামরিক ব্যক্তির উপস্থিতিতে উক্ত প্যাকেটটি খুলে গণনা করে ১১ হাজার ৮৪৫ পিস মেটা অ্যামফিটামিন যুক্ত মাদক যার বানিজ্যিক নাম ইয়াবা ওজন আনুমানিক ১১৮৪ গ্রাম বাজারমূল্য ৩৫ লক্ষ ৫৩ হাজার ৫০০ টাকা, ইয়াবা বিক্রয় বাবদ বাংলাদেশী নগদ ১৩ হাজার ৮৫০ টাকা এবং ধৃত ব্যক্তির ব্যবহৃত সিম্ফনী মোবাইল সেট ১ টি যার সিজার মূল্য ১ হাজার টাকা, সর্বমোট সিজার মূল্য ৩৫ লক্ষ ৬৮ হাজার ৩৫০ টাকাসহ উক্ত ব্যক্তিকে আটক করতে সক্ষম হয়। ধৃত আসামী হচ্ছে মোঃ আব্দুর রহিম (৩০), পিতা- মোঃ বাদশা মিয়া, গ্রাম-উত্তর লেঙ্গুরবিল, ডাকঘর- টেকনাফ, থানা- টেকনাফ, জেলা- কক্সবাজার। ধৃত আসামী জানায় যে, উক্ত ইয়াবা গুলো বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে নিজ বাড়িতে লুকায়িত অবস্থায় রেখেছে এবং কিছু ইয়াবা বিক্রয়ও করেছে। ধৃত আসামী নিষিদ্ধ ঘোষিত মাদক ইয়াবা ট্যাবলেট নিজ হেফাজতে রেখে বহন করার দায়ে মামলার মাধ্যমে টেকনাফ মডেল থানায় সোপর্দ করা হয়েছে”। ##

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।