ইয়াবা কারবারিরা স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চায়

কক্সবাজারে জলদস্যুদের মতো, এবার স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চায় ইয়াবা কারবারিরা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানের মুখে অনেকেই এখন গা ঢাকা দিয়ে আছে। তালিকাভুক্ত ইয়াবা ব্যবসায়ীদের কয়েকজন আত্মসমর্পণের আগ্রহের কথা জানিয়েছেন। পুলিশও বলছে, স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চাইলে সব ধরনের আইনী সহায়তা পাবে তারা।

সীমান্ত উপজেলা টেকনাফ। যার ওপারে মিয়ানমার। তাই সীমান্ত পেরিয়ে প্রতিনিয়ত মরননেশা ইয়াবা ঢুকছে বাংলাদেশে।

ইয়াবা পাচারকে কেন্দ্র করে বহু চক্র গড়ে উঠেছে টেকনাফসহ পুরো কক্সবাজার জেলায়। দিনে দিনে যার সংখ্যা বেড়েছে। ফলে বিস্তার হয়েছে ইয়াবা ব্যবসার নেটওয়ার্ক।

তবে সাম্প্রতিক মাদক বিরোধী অভিযানে কিছুটা হলেও বদলেছে পরিস্থিতি। কোনঠাসা হয়ে পড়েছে ইয়াবা কারবারিরা। গা ঢাকা দিয়েছে তালিকাভুক্তদের অনেকে। অন্ধকার জগতের এই মানুষ গুলো প্রতিটি মুহুর্ত পার করছে অজানা আতংকে।

সরকারের কঠোর অবস্থানের কারণে এখন স্বাভাবিক পথে ফিরে আসতে আগ্রহী ইয়াবা কারবারিদের অনেকে। চ্যানেল টোয়েন্টিফোরকে এই আগ্রহের কথা জানিয়েছেন তাদের কেউ কেউ।

তাদের এই আগ্রহকে সাধুবাদ জানিয়ে, স্বাভাবিক পথে ফিরতে সহায়তা দেয়ার কথা জানান, পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি।

কক্সবাজার জেলায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত ইয়াবা ব্যবসায়ী রয়েছে অনেকজন। তালিকাভুক্তদের মধ্য পলাতক আছে অনেকেজন। আর বিভিন্ন সময়ে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে অনেকে মারা গেছে।

সুত্রঃ চ্যানেল২৪

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ

৫ thoughts on “ইয়াবা কারবারিরা স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চায়

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।