ইয়াবা ব্যবসায়ী রোহিঙ্গা নারীর ৫ বছরের কারাদন্ড


উখিয়া উপজেলার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এক নারীকে ৯ হাজার ৭৯০ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট বহনের অপরাধে ৫ বছর সশ্রম কারাদন্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা, জরিমানা অনাদায়ে আরো ৫ মাস বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেছেন কক্সবাজারের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ-২ মাহমুদুল হাসান। এসটি ৯৭৭/২০১৮ নম্বর মামলায় ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ১৯(১) এর টেবিলের ৯(খ) ধারায় রোববার ১২ মে এ রায় ঘোষণা করেন। সাজাপ্রাপ্ত রোহিঙ্গা নারী মিয়ানমারের পানিরছরা গ্রামের মংডু থানার আকিয়াব জেলার মোহাম্মদ রুহুল আমিন স্ত্রী ফাতেমা খাতুন (৪৭)। সে কুতুপালং শরনার্থী ক্যাম্পের বাসিন্দা ছিল। তাকে ৯হাজার ৭৯০ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ শরনার্থী ক্যাম্পের সামনে আমগাছ তলী নামক স্থান থেকে র‌্যাবের সদস্যরা ২০১৭ সালের ২৮ অক্টোবর গ্রেপ্তার করেছিল। পরে র‌্যাব-৭ এর পক্ষে জেওসি-ডিএডি মোঃ আবদুল মোতালেব বাদী হয়ে এই মামলাটি দায়ের করেছিলেন। রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন-এপিপি সিনিয়র আইনজীবী এডভোকেট মোহাম্মদ আবুল কাসেম।

ইয়াবা ব্যবসায়ী রোহিঙ্গা নারীর ৫ বছরের কারাদন্ড
উখিয়া উপজেলার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এক নারীকে ৯ হাজার ৭৯০ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট বহনের অপরাধে ৫ বছর সশ্রম কারাদন্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা, জরিমানা অনাদায়ে আরো ৫ মাস বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেছেন কক্সবাজারের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ-২ মাহমুদুল হাসান। এসটি ৯৭৭/২০১৮ নম্বর মামলায় ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ১৯(১) এর টেবিলের ৯(খ) ধারায় রোববার ১২ মে এ রায় ঘোষণা করেন। সাজাপ্রাপ্ত রোহিঙ্গা নারী মিয়ানমারের পানিরছরা গ্রামের মংডু থানার আকিয়াব জেলার মোহাম্মদ রুহুল আমিন স্ত্রী ফাতেমা খাতুন (৪৭)। সে কুতুপালং শরনার্থী ক্যাম্পের বাসিন্দা ছিল। তাকে ৯হাজার ৭৯০ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ শরনার্থী ক্যাম্পের সামনে আমগাছ তলী নামক স্থান থেকে র‌্যাবের সদস্যরা ২০১৭ সালের ২৮ অক্টোবর গ্রেপ্তার করেছিল। পরে র‌্যাব-৭ এর পক্ষে জেওসি-ডিএডি মোঃ আবদুল মোতালেব বাদী হয়ে এই মামলাটি দায়ের করেছিলেন। রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন-এপিপি সিনিয়র আইনজীবী এডভোকেট মোহাম্মদ আবুল কাসেম।

য়াবা ব্যবসায়ী রোহিঙ্গা নারীর ৫ বছরের কারাদন্ড
উখিয়া উপজেলার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এক নারীকে ৯ হাজার ৭৯০ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট বহনের অপরাধে ৫ বছর সশ্রম কারাদন্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা, জরিমানা অনাদায়ে আরো ৫ মাস বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেছেন কক্সবাজারের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ-২ মাহমুদুল হাসান। এসটি ৯৭৭/২০১৮ নম্বর মামলায় ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ১৯(১) এর টেবিলের ৯(খ) ধারায় রোববার ১২ মে এ রায় ঘোষণা করেন। সাজাপ্রাপ্ত রোহিঙ্গা নারী মিয়ানমারের পানিরছরা গ্রামের মংডু থানার আকিয়াব জেলার মোহাম্মদ রুহুল আমিন স্ত্রী ফাতেমা খাতুন (৪৭)। সে কুতুপালং শরনার্থী ক্যাম্পের বাসিন্দা ছিল। তাকে ৯হাজার ৭৯০ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ শরনার্থী ক্যাম্পের সামনে আমগাছ তলী নামক স্থান থেকে র‌্যাবের সদস্যরা ২০১৭ সালের ২৮ অক্টোবর গ্রেপ্তার করেছিল। পরে র‌্যাব-৭ এর পক্ষে জেওসি-ডিএডি মোঃ আবদুল মোতালেব বাদী হয়ে এই মামলাটি দায়ের করেছিলেন। রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন-এপিপি সিনিয়র আইনজীবী এডভোকেট মোহাম্মদ আবুল কাসেম।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।