উখিয়ায় ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে থানা ঘেরাওয়ের চেষ্টা, পুলিশের লাঠিচার্জ, গ্রেফতার-১, আহত- ২

pic-azad-ukhiyee

শফিক আজাদ,
কক্সবাজারের উখিয়ায় এসএসসি পরীক্ষা চলাকালীন সময় ১৪৪ধারা ভঙ্গ করে রবিবার সকাল সাড়ে ১২টায় উখিয়া ষ্টেশনে বিকর্তিক মাদ্রাসা বন্ধের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিলোত্তর থানা ঘেরাওয়ের চেষ্টাকালে পুলিশ লাঠিচার্জ করে মিয়ানমারের নাগরিক সন্দেহে আনোয়ার নামে এক জনকে আটক করেছে। এসময় দিক-বেদিক ছুটাছুঠি করতে গিয়ে ২জন আহত হয়েছে। আহতদেরকে উখিয়ার বিভিন্ন প্রাইভেট ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে বলে সংশ্লিষ্ঠ সুত্রে জানা গেছে।
প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা যায়, উখিয়া উপজেলা রতœাপালং ইউনিয়নের চাকবৈঠা-করইবনিয়ায় স্থাপিত একটি মসজিদের বিতর্কিত কর্মকান্ড নিয়ে গ্রামবাসি দু’পক্ষের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। যা ইতিমধ্যে স্থানীয় প্রশাসন, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ এবং জনপ্রতিনিধিদের হস্তক্ষেপের উক্ত মাদ্রাসাটির কার্যক্রম বন্ধ থাকে। কিন্তু এলাকার কিছু লোক অসন্তুষ্ট হয়ে গতকাল ১৪ ফেব্রুয়ারী সকাল সাড়ে ১২টায় উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে এসে জড়ো হয়, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ব্যস্ত থাকায় তাদের পরবর্তী সময়ে এসে যোগাযোগ করা জন্য অনুরোধ করলে তারা তা অমান্য করে পরীক্ষাকালীন সময়ে ১৪৪ধারা ভঙ্গ করে, পরীক্ষা কেন্দ্রের ১’শ গজের মধ্যে উখিয়া ষ্টেশনে বিক্ষোভ মিছিলোত্তর থানা ঘেরাওয়ের চেষ্টা করলে পুলিশ লাঠিচার্জ করে মিছিলে নেতৃত্বদানকারী আনোয়ারকে মিয়ানমারের নাগরিক সন্দেহে আটক করে থানা নিয়ে যায়। এসময় পুলিশের লাঠিচার্জে ধাওয়া খেয়ে ২জন আহত হয়। উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ হাবিবুর রহমান বলেন, এসএসসি পরীক্ষা চলাকালীন ১৪৪ধারা বলবৎ থাকার পর মিছিল করায় তাকে আটক করা হয়। পরে স্থানীয় নেতৃবৃন্দ এবং জনপ্রতিনিধিদের জিম্মায় তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।