এক মাসে সীমান্তে ২৯৯ চোরাকারবারি আটক: বিজিবি

সীমান্ত এলাকায় অভিযান চালিয়ে গত এক মাসে বিভিন্ন প্রকার মাদক জব্দ করার পাশাপাশি ২৯৯ চোরাকারবারিকে আটক করার কথা জানিয়েছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ- বিজিবি।
নভেম্বর মাসে জব্দ করা বিভিন্ন চোরাচালান পণ্যের তালিকা দিয়ে বিজিবির জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. শরিফুল ইসলামের পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

তিনি জানান, ইয়াবাসহ বিভিন্ন প্রকার মাদক পাচার ও অন্যান্য চোরাচালানে জড়িত থাকার অভিযোগে ২৯৯ জন চোরাচালানীকে আটক করা হয়েছে গত মাসে।

এছাড় অবৈধভাবে সীমান্ত পার হওয়ায় ১২৬ জন বাংলাদেশি এবং নয়জন ভারতীয় নাগরিককে আটকের পর তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

জব্দ করা মাদকের মধ্যে রয়েছে- ১৩ লাখ ১২ হাজার ২৬৯ ইয়াবা, ৩ কেজি ২৩০ গ্রাম ক্রিস্টাল মেথ বা আইস, ২৪ হাজার ৫৫০ বোতল ফেনসিডিল, ১৬ হাজার ২২৪ বোতল বিদেশি মদ।

এছাড়া এক হাজার ৪৩৬ ক্যান বিয়ার, এক হাজার ৩৫৮ কেজি গাঁজা, ৮ কেজি ৩৪০ গ্রাম হেরোইন, ৯ হাজার ৯০২ ইনজেকশন, ৫ হাজার ৬৯৮ এস্কাফ সিরাপ, ১০ লাখ ৪৭ হাজার ৭৭৩ বিভিন্ন ট্যাবলেট জব্দ করা হয়েছে এই সময়ে।

অন্যান্য চোরাচালান পণ্যের মধ্যে রয়েছে- ৩ কেজি ২৯৪ গ্রাম সোনা, ৪৩ কেজি ৯৯৯ গ্রাম রূপা, কসমেটিকস সামগ্রী, ইমিটেশন গহনা, ৪ হাজার ১৬৪টি শাড়ি, থ্রিপিস ও শার্টপিস, থান কাপড়, কাঠ।

এছাড়া ৬টি ট্রাক ও কভার্ডভ্যান, ৫টি প্রাইভেটকার ও মাইক্রোবাস, ৯টি পিকআপ, ৪১টি অটোরিকশা এবং ৬৫টি মোটর সাইকেল জব্দ করা হয়েছে বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

জব্দ করা এসব চোরাচালান পণ্যের বাজার মূল্য ৮৭ কোটি ৯৬ লাখ ৮৬ হাজার টাকা বলে জানায় বিজিবি।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ