টেকনাফের সংবাদকর্মীর বাড়ী ভাংচুর, হামলাকারীকে ১ বছরের কারাদন্ড

নুরুল হোসাইন,টেকনাফ []
দৈনিক রুপালী সৈকত পত্রিকার টেকনাফ প্রতিনিধি সাইফুদ্দিন মোহাম্মদ মামুনের বসতবাড়িতে হামলা ও ভাংচুর চালিয়েছে চাঁন মিয়া নামে এক ইয়াবা ব্যবসায়ী।
১৯ জুন সকাল সাড়ে ৮টার দিকে টেকনাফ পৌরসভার পুরান পল্লান পাড়া এলাকায় হামলা ও ভাংচুর চালানো হয়।
পরে খবর পেয়ে থানা পুলিশের এসআই জাহিদ হোসনের নেতৃত্বে হামলাকারী চাঁন মিয়াকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।
একইদিন বেলা ১১ টার দিকে উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রবিউল হাসানের আদালতে হাজির করা হলে তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং তাকে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ১ বৎসরের কারাদণ্ড প্রদান করেন।
সংবাদকর্মী সাইফুদ্দিন মোহাম্মদ মামুনের মা জানায়, ইয়াবা ব্যবসায়ী রংপুরের বাসিন্দা টেকনাফে বসবাসকারী চাঁন মিয়া সকালে কিরিচ দিয়ে তাদের বাড়ির টিনের ঘেরাবেড়া কুপাইয়া ভাংচুর করছে। টিনের শব্দ পেয়ে ঘুম থেকে উঠে বাইরে থাকলে চাঁন মিয়াকে দেখতে পায়। এসময় চাঁন মিয়া আরো উত্তেজিত হয়ে তাদের বাড়িতে ঢুকে কিরিচ নিয়ে মামুনকে হত্যা করার উদ্দেশ্য প্রবেশ করে। দরজা বন্ধ থাকায় দরজা ও কুপাইয়া ভাংচুর চালায়। শব্দশুনে আতেপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে সে পালিয়ে গিয়ে বাড়ির দরজা বন্ধ করে দিয়ে গালিগালাজ করতে থাকে। তিনি আরো জানান, কোন ইয়াবা ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে এ হামলা চালানো হয়েছে।
সচেতনমহল জানান, জাতির বিবেক সংবাদকর্মীদের উপর হামলা অত্যন্ত নজিরবিহীন। তাই সংবাদকর্মীদের পাশাপাশি আর কারও উপর যেন হামলার সাহস কারও না হয় সে জন্যে হামলাকারীকে উপযুক্ত শাস্তি প্রদান করায় সচেতনমহল উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) মোঃ রবিউল হাসানকে ধন্যবাদ ও সাধুবাদ জানায়।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।