টেকনাফে গরু বাজারে সরকারী বিধি নিষেধ মানা হচ্ছে না

টেকনাফে গরু বাজারে সরকারী বিধি নিষেধ মানা হচ্ছে না-জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ কামনা
স্টাফ রিপোর্টার।

টেকনাফে সরকারী কোন বিধি নিষেধ না মেনেই চলছে জমজমাট গরুর বাজার। উখিয়া, রামুসহ পাশ্ববর্তী এলাকার লোকজন ক্রয়-বিক্রয় করতে ভীড় জমাচ্ছে । প্রশাসনের কোন নজরদারী না থাকায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে জানা গেছে।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, গরু বাজারে আসা মানুষগুলোর স্বাস্থ্যবিধি কী ধারণা নেই বললেই চলে। সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখা ও মাস্ক পড়ার প্রবণতা মোটেও চোখে পড়েনি। সচেতন মহলের ধারণা করোনা ছড়িয়া দেয়ার জন্যে এরকম একটি গরুবাজার যথেষ্ট। হাজার হাজার মানুষের গণজমায়েতের মাধ্যমে এ পশুর হাট আব্যাহত থাকলেও কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না সংশ্লিষ্ট প্রশাসন। এ বিষয়ে বাজার ইজারাদারের সাথে কথা হলে বলেন, আমরা প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে গরুর বাজার বসিয়েছি। স্বাস্থ্যবিধি বিষয়ে সকলকে অবহিত করা হয়েছে। উপজেলা প্রশাসন বলছেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে গরুর বাজার করার কথা, স্বাস্থ্যবিধি না মানলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

কিন্তু বাস্তবে দেখা যাচ্ছে ভিন্ন চিত্র! সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কোন তদারকি নেই। ইচ্ছেমতই চলছে গরুর বাজার। টেকনাফবাসীকে করোনা সংক্রমণ থেকে বাঁচাতে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া দরকার বলে মনে করছেন বিশিষ্টজনেরা।

বিত্তশালীরা গরুর বাজারের মতো গণজমায়েত করতে পারলে অন্যান্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে গরীবের পেটে লাথি মারার দরকার কী? প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন অনেকে।

দেশব্যাপী করোনার ভয়ংকর প্রকোপে থমকে গেছে জনজীবন। বন্ধ রয়েছে জরুরি সেবা ছাড়া সবকিছু। প্রতিদিন সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার বৃদ্ধি পাচ্ছে। আক্রান্তদের ভারে হাসপাতাল গুলোতে চলছে আহাজারি। আক্রান্ত হয়ে পড়েছে ডাক্তাররা। এদিকে সরকারের সমস্ত বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে চলেছে টেকনাফ গরুবাজার। সচেতন মহল করোনার ভয়ানক আগ্রাসন থেকে এলাকাবাসীকে রক্ষা করতে জেলা প্রশাসকদের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ