টেকনাফে ডাকাতের গুলিতে বাবা-ছেলে গুরুতর আহত

টেকনাফে ডাকাতের গুলিতে বাবা-ছেলে গুরুতর আহত

টেকনাফ ডাকাতের গুলিতে বাবা-ছেলে দুজন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। তাদের অবস্থা আশংঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। বুধবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে টেকনাফের বাহারছড়া ইউনিয়নের কচ্ছপিয়া এলাকা বাড়িতে ঢুকে ডাকাতের ছোড়া গুলিতে তারা আহত হন।

গুলিবিদ্ধরা হচ্ছেন- টেকনাফ বাহারছড়া ইউনিয়নের কচ্চপিয়া গ্রামের গুরা মিয়ার ছেলে আলি আহমদ (৪০) তার ছেলে মো. জয়নাল উদ্দিন (১২)।

এ ব্যাপারে টেকনাফ মডেল থানার ওসি মো. হাফিজুর রহমান বলেন, ‘ডাকাত দলের গুলিতে বাবা-ছেলে দুজন গুলিবিদ্ধ হওয়া খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছেছে। পুলিশ অস্ত্রধারীদের ধরতে অভিযান পরিচালনা করছে।

আহতদের স্বজন মো. সাইফুল জানান, ‘রাতে দোকান বন্ধ করে বাবা-ছেলে বাড়ি চলে আসেন। এর কিছুক্ষন পর হঠাৎ অস্ত্রধারীরা বাড়িতে ঢুকে গুলি চালায়। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় মাঠিতে পরে যায়। তাদের সুর-চিৎকারে স্থানীয়রা লোকজন এগিয়ে এসে তাদের উদ্ধার করে দ্রুত টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগে নিয়ে যায়। তবে আলি আহমদের অবস্থা অবনতি হওয়ায় তাকে সরাসরি কক্সবাজারের নিয়ে যাওয়া হয়। ধারনা করা হচ্ছে রোহিঙ্গা ডাকাতরা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার সম্ভবনা রয়েছে।

এবিষয়ে টেকনাফ উপজেলা স্থাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে চিকিৎসক মো. আইয়ুব খান বলেন, ‘গুলিবিদ্ধ অবস্থায় স্বজনরা এক কিশোরকে নিয়ে আসেন। তার মাথার বাম পাশে গুলির আঘাত রয়েছে। তার অবস্থা আশংঙ্কাজনক হওয়ায়, প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে কক্সবাজার হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ