টেকনাফে মাদক ও মানব পাচারে জড়িত ৮টি নৌকা গায়েবী আগুনে পুড়ে ছাঁই

টেকনাফে মানব পাচার ও মাদকের চালান খালাসের জোন হিসেবে খ্যাত উপকূলীয় মুন্ডার ডেইল ঘাটে গায়েবী আগুনে এসব কাজে ব্যবহৃত ৮টি মাছ শিকারী বোট ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।
জানা যায়, গত ১০ জানুয়ারী রাত সাড়ে ১০টারদিকে উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের মুন্ডার ডেইল সাগর উপকূলীয় পয়েন্টে ইয়াবা চোরাচালান ও মানব পাচার কাজে সম্পৃক্ততার কারণে কথিত গায়েবী আগুনে শাকের মাঝির ২টি, রহমুল্লাহর ১টিসহ মোট ৮টি মাছ শিকারী নৌকা ক্ষতিগ্রস্থ হয়। অবশ্যই আইন প্রয়োগকারী কোন সংস্থা এই ব্যাপারে অবনত না বলে জানা গেছে। এদিকে গত বছরের ১৯ অক্টোবর রাতে ওসি প্রদীপ কুমার দাশ টেকনাফ মডেল থানায় দায়িত্বভার গ্রহণের পর হতে সরকার ঘোষিত মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষণা করে। এর পর পরই উপজেলার বিভিন্ন স্থানে মাদক ব্যবসায়ীদের বন্দুক যুদ্ধ, ইয়াবা ডনদের রাজ-প্রসাদে গায়েবী হামলা এবং গতকালের গায়েবী আগুনের ঘটনা ঘটে। এসব কারণে টেকনাফসহ দেশের প্রত্যন্ত এলাকায় ছড়িয়ে পড়া মাদক চোরাচালানে ভাটা পড়ে। বিগত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর মাদক চোরাচালানীরা আবারো সক্রিয় হওয়ার চেষ্টা হলে বন্দুক যুদ্ধ এবং গায়েবী আগুনের সুত্রপাত হয়।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ

৩ thoughts on “টেকনাফে মাদক ও মানব পাচারে জড়িত ৮টি নৌকা গায়েবী আগুনে পুড়ে ছাঁই

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।