টেকনাফে রেডিয়্যান্ট নিউট্রিসিউটিক্যালস সরবরাহ দিচ্ছে মেয়াদহীন ঔষুধ হেপাসিল

saiful teknaf pic 20-2-14
নুর হাকিম আনোয়ার []
যে ঔষুধ মানুষের জীবন রক্ষা ও রোগ ভাল করার জন্য তৈরী করা হয়, সে ঔষুধ যদি মানুষের প্রাণঘাতি বা ক্ষতি করে বা মানুষকে আরো বেশি বিপদগামী করে এটা কেমন ঔষুধ ? আজকাল এত বেশিই ঔষুধ ব্যবসায়ীরা লোভী হয়ে উঠেছে যে, তারা টাকার জন্য মেয়াদহীন ঔষুধ সাপ্লায় দিচ্ছে দোকানে, অন্যদিকে দোকানদাররা বেশি লাভের আশায় এসব মেয়াদ উর্ত্তীণ ঔষধ লুফে নিচ্ছে। ফলে ঔষুধ ব্যবসায়ী কর্তৃক রোগমুক্তির চেয়ে মৃত্যুর ঝুকি বাড়ছে। এক ব্যক্তি জানান টেকনাফ জীপ ষ্টেশন এলাকায় লিলি ফার্মেসীতে লিভার সুরক্ষাকারী ঔষুধ হেপাসিল ক্যাপসুল কিনতে গেলে দোকানদার মেয়াদহীন এক প্যাকেট হেপাসিল ক্যাপসুল বের করে বলেন,দেখেন গতকাল রেডিয়্যান্ট নিউট্রিসিউটিক্যালস লিমিটেড, টঙ্গী, ঢাকা মেয়াদহীন হেপাসিল ক্যাপসুল সরবরাহ দিয়ে গেছে। এ ঔষুধ ক্ষতি করবে অন্যদোকানে দেখুন। এভাবে আমার দোকানের মত প্রত্যেক দোকানে যদি এসব মেয়াদহীন ঔষুধ সাপ্লাই দেয়, কোন না কোন ক্রেতা তো এ ঔষুধ কিনবেই। এতে অসুস্থ্য মানুষের লাভের চেয়ে ক্ষতিটায় বেশি হবে। এভাবেই ঔষুধ ব্যবসায়ীরা টেকনাফের ঔষুধ দোকানগুলোতে প্রতিনিয়ত মেয়াদহীন ঔষুধ সাপ্লাই,ক্রয় বিক্রয় করে গেলেও তাদের বিরুদ্ধে কোন অভিযান করছেনা কেউ। এলাকার বেশ কয়েকজন সচেতন ব্যক্তি জানান, টেকনাফের প্রায় ঔষুধ ব্যবসায়ীর টার্গেট মিয়ানমারে পাচার করা। অনেক ব্যবসায়ী ঔষুধ ক্রয় করে মিয়ানমারে পাচার করে থাকে। টেকনাফ নামার বাজার, উপরের বাজার, নাজির পাড়া, সাবরাং,হ্নীলা চৌধুরী পাড়া, নাটমুড়া পাড়া, পুরানবাজার, মৌলভী বাজার, খারাংখালী ও হোয়াইক্যংএর উনচিপ্রাংসহ অনেক সীমান্ত এলাকা থেকে প্রতিনিয়ত চোরাকারবারী কর্তৃক মিয়ানমারে ঔষুধ পাচার হচ্ছে। মিয়ানমারে পাচার কালে এ পর্যন্ত বিজিবি পুলিশ অনেক ঔষুধসহ পাচারকারীকে আটক করেছিল। মিয়ানমারে ভাল ঔষুধের পাশাপাশি যে সব মেয়াদহীন ঔষুধ পাচার হচ্ছে,তার মধ্যে থেকে যাওয়া অনেক ঔষুধ টেকনাফের বিভিন্ন দোকানে সাপ্লাই দিয়ে যাচ্ছে। সরকারের বিভিন্ন গোয়েন্দাসংস্থা ও সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কর্মর্কতারা যদি এসব ব্যক্তি ও প্রতিষ্টানকে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় নিয়ে যাওয়া হয়, বাজারে মেয়াদহীণ ঔষুধের সাপ্লাই অনেটা কমে যাবে।

 

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।