টেকনাফে স্কুল শিক্ষার্থী ধর্ষনের শিকার !

টেকনাফ(কক্সবাজার) প্রতিনিধি:
টেকনাফে ৬ষ্ঠ শ্রেনির এক স্কুল ছাত্রী ধর্ষনের শিকার হয়েছে। ওই স্কুল ছাত্রী বর্তমানে ৩ মাসের অন্তসত্বা বলে গুরুত্বর অভিযোগ পাওয়া যায়। এ বিষয়ে হারিয়াখালীর হাফেজ উল্লাহ’র ছেলে লম্পট মোঃ সাইফুল ইসলাম কে আসামী করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন সংশোধনী ২০০৩,৯ (১) ধারায় টেকনাফ মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা নং-: ০৮/৯১৬, তারিখ ০৫/১১/২০২০ ইং। সাবরাং ইউনিয়নের হারিয়াখালী এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।
মামলার এজাহার সুত্রে জানা যায়, বাদির শিশু কন্যাকে একই এলাকার বাসিন্দা মোঃ সাইফুল ইসলাম গত ১০ জুলাই রাতে ভিকটিম চাচার বাড়ীতে যাওয়ার সময় একা পেয়ে জোরপূর্বক বাড়ীর পিছনের ঝোপ জঙ্গলে নিয়ে ধর্ষন করে । ধর্ষনের আলামত নষ্ট করতে মেয়েকে ঔষধ সেবন করালে ধর্ষিতার পেট ব্যাথা হয়। তখন মেয়েকে টেকনাফ হাসপাতালের ডাক্তার এর নিকট নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার রোগ নির্ণয়ে আল্ট্রসনোগ্রাফী করতে বলে। এতে ভিকটিম ৩ মাসের অন্তঃস্বত্তা হয়ে পড়ে বলে জানায় ডাক্তার।
মামলার বাদী আনোয়ারা বেগম জানান, মামলা প্রত্যাহার করে নিতে ভিকটিমসহ তার পরিবারকে হত্যার হুমকি দেয় আসামি ও তার আত্বীয়স্বজনরা। মামলা প্রত্যাহারে রাজী না হওয়ায় মেয়েকে ১০ নভেম্বর রাতে অপহরন করে নিয়ে যায়। বর্তমানে মেয়ে কোথায় আছে এ বিষয়ে কিছুই জানতে পারেনি। তিনি মেয়েকে উদ্ধার পূর্বক ধর্ষকের উপযুক্ত শাস্তি কামনা করেছেন।
মামলার তদন্ত কারী কর্মকর্মা, টেকনাফ মডেল থানার সাব- ইন্সপেক্টর মোঃ সোহেল রানা জানান, আসামীকে আটকের চেষ্টা চলছে।####

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ