টেকনাফে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত-২

টেকনাফে মোটর সাইকেল-ম্যাজিক গাড়ী মুখোমুখী সংঘর্ষে ২ জন নিহত ও ১১জন গুরুতর আহত হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে, শুক্রবার (১৮ এপ্রিল) দুপুর সাড়ে ১২টায় উপজেলার হ্নীলা আলীখালী-রঙ্গিখালী মাঝামাঝি সৌর বিদ্যুৎ প্যানেলের সংলগ্ন কক্সবাজার-টেকনাফ সড়কে বালুখালীগামী যাত্রীবাহী ম্যাজিক গাড়ী সাথে টেকনাফ গামী মোটর সাইকেলের মুখোমূখী সংঘর্ষ হয়। আশপাশের লোকজন দ্রুত এসে ঘটনাস্থাল থেকে আহতের উদ্ধার করে লেদা আইএমও হাসপাতালে নিয়ে গেলে হোয়াইক্যং ইউপির ঝিমংখালী এলাকার আবু শমার পুত্র হাজী গুরা মিয়া (৪৫) ও বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আবুল হকের পুত্র মো: আয়াছ (১৫) নিহত হয়। এছাড়া উনচিপ্রাং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডি ব্লকের ২০৫৮ নাম্বার রুমের মোহাম্মদ হোছাইনের পুত্র সুলতান আমিন (৩৮), একই ক্যাম্পের ডি ব্লকের সুলতান আমিনের পুত্র মোঃ সলিম (১৩), থাইংখালী হাকিম পাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ৬নং ব্লকের ৫০৯ রুমের আমির হোসাইনের পুত্র আয়াতুল্লাহ (৩৫), কুতুপালং লম্বা শিয়া ক্যাম্পের কবির আহমদের পুত্র নবী হোসাইন (১৪), একই ক্যাম্পের জি/৩ ব্লকের মৃত অলি আজমদের পুত্র জমির হোসাইন (৩২), পালাংখালী সবিউল্লাহ হাড়া ক্যাম্পের ডি/৩ ব্লকের ১৪০ রুমের লালুর পুত্র আব্দুল আমিন (২২), জামতলি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আহমদ হোসেনের পুত্র আবাদ উল্লাহ (২৫), একই ক্যাম্পের সি/৭ ব্লকের ছৈয়দ নুরের পুত্র এনায়েত হোসাইন (১৯), বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এফ ব্লকের ১১৬৬২৪ নাম্বার রুমের আনু মিয়ার পুত্র নজুম উল্লাহ (১৩), একই ক্যাম্পের এফ ব্লকের আব্দুল হামিদের পুত্র মোঃ জুবাইর (২০)সহ ১১ জন গুরুতর আহত হয়। আহতদের মধ্যে আশংকাজন হওয়ায় ২জনকে কক্সবাজার প্রেরণ করা হয়েছে। খবর পেয়ে নয়াপাড়া পুলিশ ফাঁড়ির এসআই শরীফুলের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থালে পরিদর্শন করে নিহতদের পরিবারের কাছে লাশ হস্থান্তর এবং দূর্ঘটনায় কবলিত গাড়ী দু’টি জব্দ করে। এছাড়া আইএমও হাসপাতালে সেনা বাহিনী ও বিজিবির পৃথক টিম রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।