টেকনাফে ৯,৬৬৫ পিস ইয়াবাসহ আটক হিসাবধারী মহিলাকে আদালতে প্রেরণ

ewrew
২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধীনস্থ হোয়াইক্যং বিওপিতে কর্মরত জেসিও-৪৯৯৬ সুবেদার মোঃ আব্দুস সালাম এর নেতৃত্বে একটি বিশেষ টহল অদ্য ০২ এপ্রিল ২০১৬ তারিখ হোয়াইক্যং চেকপোষ্টে কর্তব্যরত ছিল। সময় আনুমানিক ১২২০ ঘটিকায় হৃীলা হতে উখিয়াবাজারগামী একটি অটো রিক্সা হোয়াইক্যং চেকপোষ্ট হতে আনুমানিক ১৫ গজ সামনে এসে থামে। তখন উক্ত অটো রিক্সা হতে একজন মহিলা হেঁটে চেকপোষ্ট অতিক্রম করার সময় তাৎক্ষনিক উক্ত মহিলাকে সন্দেহ হলে চেক পোষ্টে নিয়ে চেকপোষ্টে হাজির একজন বেসামরিক মহিলা দিয়ে পুঙ্খানুপুঙ্খরুপে দেহ তল্লাশী করে তার গোপনাঙ্গের নিচে আন্ডার ওয়্যার (পেন্টি) এর ভিতর ফিটিং অবস্থায় স্কচটেপ দিয়ে মোড়ানো ০১ টি প্যাকেট পাওয়া যায়। উক্ত প্যাকেটটি খুলে গণনা করে ৯,৬৬৫ (নয় হাজার ছয়শত পয়ষট্টি) পিস মেটা অ্যামফিটামিন যুক্ত মাদক যার বানিজ্যিক নাম ইয়াবা ওজন আনুমানিক ৯৬৫ গ্রাম বাজারমূল্য ২৮,৯৯,৫০০/- (আটাশ লক্ষ নিরানব্বই হাজার পাচঁশত টাকা) এবং ধৃত ব্যক্তির ব্যবহৃত মাইক্রোম্যাক্স মোবাইল সেট ০১ টি (মডেল-এফ১৪৫) রবি সীমসহ যার সিজার মূল্য ২,০০০/- (দুই হাজার টাকা) সর্বমোট সিজার মূল্য ২৯,০১,৫০০/- (উনত্রিশ লক্ষ এক হাজার পাচঁশত) টাকাসহ উক্ত ব্যক্তিকে আটক করতে সক্ষম হয়। ধৃত আসামীর নাম ও ঠিকানা ঃ মোছাঃ আছিয়া আক্তার (২৫), স্বামী-মোঃ রফিক মিয়া, গ্রাম-পুরাতন পল্লানপাড়া, ডাকঘর-টেকনাফ, থানা-টেকনাফ, জেলা- কক্সবাজার। ধৃত আসামী আরও জানাই যে, উক্ত ইয়াবা গুলো বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে হৃীলা হতে কক্সবাজার নিয়ে যাচ্ছিল। ধৃত আসামী নিষিদ্ধ ঘোষিত মাদক ইয়াবা ট্যাবলেট নিজ হেফাজতে রেখে বহন করার দায়ে মামলার মাধ্যমে টেকনাফ মডেল থানায় সোপর্দ করা হয়েছে ।
টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুল মজিদ জানান, তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।