টেকনাফ পৌর ও পর্যটন শহরে বে-ওয়ারিশ কুকুরের উপদ্রব বৃদ্ধি : কুকুর নিধনের দাবী


মোঃ আশেক উল্লাহ ফারুকী, টেকনাফ::
টেকনাফে পৌর ও পর্যটন শহরে বেওয়ারিশ কুকুরের উপদ্রব ইদানিং আশংখাজনক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। কুকুরের উপদ্রবের কারণে রাস্তায় পথচারী যাতায়াত প্রায় দুস্কর হয়ে দাড়িয়েছে। পৌরবাসী এ নিয়ে আতংক অবস্থার মধ্যে ভোগছেন। ভূক্তভোগীরা জানায়, কুকুরের কামড়ে অনেকেই জলাতংক রোগে আক্রমনের শিকার হচ্ছে । বিশেষ করে পৌরসভার জালিয়াপাড়া, নাইট্যং, পুরাতন পল্লান পাড়া, কে কে পাড়া, অলিয়াবাদ, বাজার পাড়া, চৌধুরী পাড়ার ও টেকনাফ পৌর শহরে বেওয়ারিশ কুকুরের জন্য হাঁটা যায়না। গত একযুগ ধরে কুকুর নিধন অভিযান না থাকাতে এর সংখ্যা ক্রমশঃ বাড়তে শুরু করেছে। পৌরবাসীরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষন করে বলেন, জনস্বার্থে কুকুর নিধন নিতান্ত প্রয়োজন বলে তারা দাবী করেন। কেননা পৌরবাসী নিয়মিত কর আদায় করে আসলেও এক্ষেত্রে তারা চরম ঝুঁকিতে বসবাস করে আসছেন। টেকনাফ পৌর এবং পর্যটন হিসাবে গুরুত্ব অনেক বেশী। পর্যটক মৌসূমে দেশী ও বিদেশী পর্যটক এখানে আসেন এবং এ দৃশ্য দেখে তারা নানা ধরনের মন্থব্য করতে শুনা যায়। তাই জনস্বার্থে এবং পরিবেশের স্বার্থে কুকুর নিধন প্রয়োজন বলে সচেতন পৌরবাসীরা জানায়। এছ্ড়াা বেওয়ারিশ কুকুরের পাশাপাশি মানুষরূপী পাগলের সংখ্যা পাল্লা দিয়ে বাড়ছে। টেকনাফ হাসপাতাল, পুরাতন পল্লান পাড়া ও উপজেলা প্রশাসন চত্তর অভ্যন্তরিক ও প্রধান সড়কে বেওয়ারিশ কুকুর ও ছদ্মবেশী মানুষরোপী পাগলের উপদ্রব এমন পর্যায়ে পৌচেছে যে, তা ভূক্তভোগী ছাড়া কেউ বলতে পারেনা। স্কুলগামী কোমলমতী ছাত্র/ছাত্রীরা এ নিয়ে আতংকের মধ্যে থাকে। উল্লেখ্য টেকনাফ ষ্টেশান ও উপরের বাজারে মাংস ও মাছ বাজার বেওয়ারিশ কুকুরের দখলে থাকে।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।