টেকনাফ ফারিয়া র বর্ষবরণ ১৪২৬ উৎসব সম্পন্ন

বর্ষবরণ -গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জি অনুসারে বাংলাদেশের প্রতি বছর ১৪ই এপ্রিল এই উৎসব পালিত হয়। বাংলা একাডেমী কর্তৃক নির্ধারিত আধুনিক বাংলা পঞ্জিকা অনুসারে এই দিন নির্দিষ্ট করা হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গে চান্দ্রসৌর বাংলা পঞ্জিকা অনুসারে১৫ই এপ্রিল পহেলা বৈশাখ পালিত হয়। এছাড়াও দিনটি বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গের সরকারি ছুটির দিন হিসেবে গৃহীত। বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যবসায়ীরা দিনটি নতুনভাবে ব্যবসা শুরু করার উপলক্ষ হিসেবে বরণ করে নেয়।
এই উৎসব শোভাযাত্রা, মেলা, পান্তাভাত খাওয়া, হালখাতা খোলা ইত্যাদি বিভিন্ন কর্মকান্ডের মধ্য দিয়ে উদযাপন করা হয়। বাংলা নববর্ষের ঐতিহ্যবাহী শুভেচ্ছা বাক্য হল “শুভ নববর্ষ”। নববর্ষের সময় বাংলাদেশে মঙ্গল শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়। ২০১৬ সালে, ইউনেস্কো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক আয়োজিত এই উৎসব শোভাযাত্রাকে “মানবতার অমূল্য সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য” হিসেবে ঘোষণা করে।রীতিমতো
ফার্মাসিউটিক্যালস রিপ্রেজেন্টেটিভ এসোসিয়েশন ফারিয়া টেকনাফ উপজেলা বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে। ভোরে টেকনাফ মহেশখালীয়াপাড়া এক্সক্লুসিভ টুরিজম পার্কে পান্তা-ইলিশের মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসূচি শুরু হয়।এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্তিত ছিলেন বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় ফারিয়া ১ম সহসভাপতি আবু সুফিয়ান,  বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্তিত ছিলেন বাংলাদেশ গ্রাম ডাক্তার কল্যাণ সমিতি টেকনাফ উপজেলা শাখা র সিনিয়র সহসভাপতি জাহাঙ্গীর হোসাইন,  কেন্দ্রীয় ফারিয়া সহ-অর্থ সম্পাদক নুরুল কবির, চট্টগ্রাম বিভাগের কার্যকরী সদস্য জামাল হোসাইন, টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর দন্ত চিকিৎসক মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন, মারোত জয়েন্ট সেক্রেটারি মোবারক হোসাইন, সাবরাং থেকে ছৈয়দ আলম জাকু । টেকনাফ ফারিয়া সাংগঠনিক সম্পাদক নাচির উল্লাহ র সার্বিক তত্ত্বাবধানে অন্যান্যের মধ্যে   উপস্তিত ছিলেন সংগঠন এর সভাপতি রাশেদ উদ্দিন, সহ সম্পাদক আজিম উদ্দিন, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ  ছিদ্দিক, সিনিয়র সদস্য খালেক সর্দার, সাবেক সহসভাপতি নুরুল ইসলাম, মোহাম্মদ মাসুদ, মোহাম্মদ এরশাদ, মিনার হোসেন মীম, মোহাম্মদ জুবায়ের, কামাল হোসেন, সীমান্ত মোহন্ত, মানস মন্ডল, প্রমুখ ।
Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।