টেকনাফ বন বিট কর্মকর্তার ২৪ মাসের বিদ্যুৎ বিল বকেয়া

টেকনাফ বন বিট কর্মকর্তার ২৪ মাসের বিদ্যুৎ বিল বকেয়া
আমি মানুষ খাঁটো হলেও আমার হাত কিন্তু মন্ত্রী পর্যন্ত
নিজস্ব প্রতিবেদক
টেকনাফ বনবিভাগের বিট কর্মকর্তা বর্তমানে অতিরিক্ত দায়িত্বপালনকারী রেঞ্জ কর্মকর্তা আশিক আহমেদের ব্যবহৃত সরকারী কোয়াটার ও অফিসের বিগত ২৪ মাসের বিল বকেয়া রাখা রয়েছে।
টেকনাফ পল্লীবিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে গেলে লাইনম্যানকে চাকুরীচ্যুত – কাঠ চোরের মামলা দেয়ার হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে এব্যাপারে পল্লীবিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানায়নি।
সে যোগদানের পর থেকে চলমান সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বকেয়া বিলের তথ্য থেকে জানা গেছে, টেকনাফ বন বিভাগের দুটি গ্রাহকদের কাছে ২০ হাজার ৯’শ ১৩ টাকা পাওনা রয়েছে বিদ্যুৎ বিভাগের। যার মিটারের ৪৩৭-৩১৩০ বকেয়া ২৪ মাসের ৪৭৩৫ টাকা, অপর মিটারের ৪৩৭-৩১৫০ বকেয়া ২৪ মাস -১৬১৭৮ টাকা।

অনুসন্ধানে জানা গেছে- তার বিরুদ্ধে গাছের সরকারী বাগান সৃজনের চারা-রোপণের টাকা হরিলুট, বনবিভাগের রিজার্ভ জমির বসবাসরত হুমকি, পাথর বিক্রি, জমির প্লট বিক্রি, লোকজনকে মামলায় মিথ্যা জড়ানো এবং তার হাতে থাকা সরকারী অস্ত্র দিয়ে হত্যার হুমকি দেয়া, উপজেলা পরিষদের সভায় উপস্থিত না থাকায় কারণ দর্শানোর নোটিশ/শোকজ করার অভিযোগ আছে।
এছাড়া স’মিল থেকে মাসিক মাসোয়ারা নেয়া, বন্দরের কাঠ থেকে টাকা আদায়, পানের বরজ- ঘরবাড়ি উচ্ছেদ নামে মাসিক টাকা নেয়া, বাড়ি নির্মাণ করতে টাকা নেয়ার অভিযোগ রয়েছে।
তার অবেহলার কারণে বন্যহাতি মরে যায়, খাদ্য সংকটের অভাবে পড়ে থাকা, মাটি বিক্রির সময় টাকা দাবী করায় দিতে না পারায় গাড়ি জব্দ, টাকা দিয়ে গাড়ি ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ রয়েছে।
এব্যাপারে কথা বলতে গেলে সে জানায়-আমি মন্ত্রীর লোক, আমি কাউকে পাত্তা নেই না। আমি মামলা দিয়ে ছাড়ব। আমি মানুষ খাঁটো হলেও আমার হাত কিন্তু মন্ত্রী পর্যন্ত।
ইতির্পূবে সে টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নে বিট অফিসার দায়িত্ব পালন করেছিল, সেখানেও গ্রামবাসীর অহরহ অভিযোগ ছিল তার বিরুদ্ধে। পরে টেকনাফ রেঞ্জ কর্মকর্তা বদলী হওয়ায় তাকে অতিরিক্ত দায়িত্ব দেয়া হয়। বনবিভাগের সাথে সম্পৃক্ত লোকজন জানিয়েছেন- সে যেন একটা প্রেসিডেন্ট, মন্ত্রীর মতো কথাবার্তা তার, বড় বেয়াদব একজন লোক। টেকনাফে থাকা অবস্থায় তার অপকর্মের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবী জানান।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ