তুচ্ছ ঘটনায় সাবরাং কচুবনিয়ায় মারামরি : আহত ৭

তুচ্ছ ঘটনায় সাবরাং কচুবনিয়ায় মারামরি : আহত
নিজস্ব সাংবাদদাতা:
টেকনাফ উপজেলার সাবরাং কচুবনিয়া এলাকায় পারিবারিক মলোমালিন্যে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে নারী-পুরুষকে বেধড়ক মারধর করেছে গুরুতর আহত করার খবর পাওয়া গেছে।
এ ঘটনায় উভয় পক্ষের ৭ জন গুরুতর আহত হয়েছে।
আহতরা হলেন, আবদুল করিম(৫৫), খতিজা(৪৭), সারা খাতুন(১৬), হালিমা খাতুন(১৯), আরিফ (১১), দিলু আরা(৪৫)।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার সকাল ৯টারদিকে আবদুল করিম ও তার মৃত ছোট ভাইয়ের স্ত্রী মুন্নির সাথে তাদের বাকবিতণ্ডা হয়। এরপর মুন্নি তার ভাইদের ডেকে এনে উস্কে দিলে কবির, বশির, রশিদ ও সাইফুলসহ অজ্ঞাতরা তার উপর ধারালো দা ও লাঠিসোটা নিয়ে হামলা চালায়। এ সময় আবদুল করিম ও তার স্ত্রী গুরুতর আহত হলে স্থানীয়রা উদ্বার করে টেকনাফ হাসপাতালে নেওয়া হলে গুরুতর আহত হওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে কর্মরত চিকিৎসক।
পরে বিকেল ৫টার দিকে ওই ঘটনার জের ধরে আবারও মারামারির ঘটনায় উভয় পক্ষের ৫জন আহত হয়।
আহত আবদুল করিম জানান, মৃত ছোট ভাইয়ের স্ত্রী মুন্নি বেপরোয়া চলাচলে তিনি বাঁধা প্রদান করেন। মূলত এর জের ধরেই তার ভাইদের মিথ্যা উস্কানি দিয়ে সোমবার (৩জানুয়ারী) সকালে লম্বা দা, লোহার রড ও লাঠিসোটা নিয়ে আমাকে অতর্কিত হামলা করে গুরুতর আহত করে।
এছাড়া বিকাল ৫টায় ও তার বসত বাড়ীতে হামলা করে মহিলাদের আহত করেছে বলে দাবী করেন। এসময় নারী-শিশুসহ ৪জন আহত হয়েছে দাবী করেন।
এদিকে মুন্নির পরিবার জানায় আবদুল করিম ঝগডাটে লোক। তার সন্তারা বিকেলবেলা রাস্তায় চলার পথে পেয়ে বশির নামে একজনকে মারধর করে রক্তাক্ত করে।
এঘটনায় কোন পক্ষই থানায় অভিযোগ করেনি বলে জানান টেকনাফ থানা পুলিশ।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ