তুহিন নিখোজের প্রতিবাদে বেনাপোল চেকপোস্ট থেকে শার্শা পর্যন্ত ৭কিঃমিঃ ব্যাপি মানব বন্ধন

0বেনাপোল পৌরসভার প্যানেল মেয়র ও শার্শা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি তারিকুল আলম তুহিন ২৪ দিন ধরে নিখোজ  হওয়ার ঘটনার প্রতিবাদে রোববার সকাল ৯টা হতে ১১টা পর্যমত্ম বেনাপোল চেকপোস্ট হতে শার্শা পর্যমত্ম ৭কিলোমিটার মানব বন্ধন করেছে শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের সকল অংগ সংগঠনের নেতাকর্মী সহ সর্বসত্মরের জনতা। বেনাপোল পৌর কাউন্সিলর ও পৌর যুবলীগের আহবায়ক আহাদুজ্জামান বকুলের নেতৃত্বে তুহিনকে স্বুস্থ্য শরীরে জীবিত ফেরত পাওয়ার দাবিতে চেকপোস্টে বিশাল মানব বন্ধন হয়। পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব নাছির উদ্দিনের নেতৃত্বে বেনাপোল বাজার এলাকায় বিভিন্ন  ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে মানব বন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়।

মানব বন্ধন শেষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম সিরাজ বলেন, আমরা অনতিবিলম্বে আমাদের রাজনৈতিক সহকর্মী তারিকুল আলম তুহিনকে স্বশরীরে জীবিত অবস্থায় ফেরত চাই। যদি তুহিনকে কয়েকদিনের মধ্যে ফেরত না পায়, তাহলে বেনাপোল বন্দর অচল করে দেওয়া হবে।   সমসত্ম গাড়ি চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হবে। আমাদের আন্দোলন তীব্র থেকে তীব্রতর করা হবে। আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব নাছির উদ্দিন, সহ সভাপতি আজিজ আহম্মদ, দপ্তর সম্পাদক সুকুমার দেবনাথ, যুবলীগের আহবায়ক ও পৌর কাউন্সিলর আহাদুজ্জামান বকুল, সাদিপুর ওয়ার্ড আওয়ামীলগের সভাপতি সুলতান আহম্মেদ বাবু মেম্বর, বেনাপোল ইউপি চেয়ারম্যান বজলুর রহমান, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুজ্জামান শহীদ প্রমুখ।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, বেনাপোল পৌর আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আলী কদর সাগর, মোজাফফর আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক রহমত আলী, মনিরুজ্জামান ঘেনা, ভাদু, যুগ্ম সম্পাদক মহাতাপ, গাতিপাড়া ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি আমিনূর রহমান প্রমুখ।

এছাড়া একই সময়ে শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও নাভারণ ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিলের নেতৃত্বে শার্শা বাজারে বিশাল মানব বন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়েছে। মানব বন্ধন শেষে শার্শা থানার সামনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এখানে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব নুরুজ্জামান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান বাবলু, চেয়ারম্যান ইলিয়াচ কবির বকুল, যুবলীগের সাধারন সম্পাদক চেয়ারম্যান সোহারাব হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদি হাসান,  উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুর রহিম সরদার প্রমুখ।

উলে­খ্য, গত ৭ মার্চ তারিকুল আলম তুহিন ঢাকা থেকে নিখোজ হয়। নিখোজের পরে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের শার্শা শাখার বিভিন্ন অংগ সংগঠন দীর্ঘদিন ধরে বেনাপোল যশোর সড়ক অবরোধ করে রাখে। এ অবরোধের ফলে বেনাপোল বন্দর যখন অচল অবস্থার মধ্যে হাবুডুবু খাচ্ছিল ঠিক তখনি প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের আশ্বাস ও অনুরোধে অবরোধটি সাময়িক স্থগিত করা হয়েছিল। আজ আর শার্শা আওয়ামীলীগের সকল অংগ সংগঠনের নেতা কর্মীরা তাদের প্রাণপ্রিয় রাজনৈতিক সহকর্মীকে হারিয়ে চুপ করে বসে থাকতে পারলোনা। সকল বাধ ভেঙ্গে প্রশাসনকে আরো একবার হুসিয়ার করে দিল। নেতারা তারই ইঙ্গিত করে বলেছে যথাশীঘ্র্ সম্ভব তাদের রাজনৈতিক সহযোদ্ধাকে জীবিত অবস্থায় ফেরত দেওয়া না হলে বেনাপোল বন্দর অচল করে দিবে। সমসত্ম যান চলাচল বন্ধ করে দেবে। এতেও যদি লাভ না হয় তাহলে আরো কঠোর কর্মসূচী ঘোষণা করবে।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।