দুই ঘন্টার ব্যবধানে সিদ্ধান্ত বদল : বুধবারই ঈদ

ডেস্ক ঈদ মোবারক। দুই ঘন্টার ব্যবধানে সিদ্ধান্ত বদল করে জানানো হলো বৃহস্পতিবার নই। কাল বুধবারই ঈদ। শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যাওয়ায় আগামীকাল বুধবার (৪ জুন) বাংলাদেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে। মঙ্গলবার রাতে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির ফের বৈঠক শেষে ব্রিফিংয়ে এ সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়েছে। ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহর সভাপতিত্বে ওই বৈঠক শেষে ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানানো হয়। এর আগে সন্ধ্যায় বৈঠকে বসেছিল কমিটি। তখন দেশের কোথায় চাঁদ দেখার খবর পাওয়া যায়নি বলে জানায় কমিটি। এই সংবাদ ও আবাহাওয়া অফিসের তথ্য বিশ্লেষণ করে তখন কমিটি জানায়, চলতি বছর দেশে ৩০টি রোজা পালিত হবে এবং ঈদ উদযাপিত হবে বৃহস্পতিবার। তবে এর কিছুক্ষণ পর আবারও বৈঠকে বসে কমিটি। এদিকে প্রথমে সন্ধ্যায় ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মুকাররমস্থ সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় চাঁদ দেখা না যাওয়ায় বৃহস্পতিবার পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। পরবর্তীতে আবার রাত ১১টার দিকে পুনরায় ব্রিফিং করে ঈদ উদযাপনের সিদ্ধান্ত জানানো হয়। চাঁদ দেখার মধ্য দিয়ে এক মাস ধরে সংযম সাধনার ইতি ঘটল। কাল বুধবার ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা মেতে উঠবে ঈদ আনন্দে, উৎসবে। আত্মীয়-পরিজন ও বন্ধুবান্ধব নিয়ে, ধনী-গরিব- নির্বিশেষে সব মানুষ অংশ নেবে ঈদের ঐতিহ্যবাহী আয়োজনে। পবিত্র ঈদ-উল-ফিতরকে সামনে রেখে সারাদেশে সম্পন্ন হয়েছে ঈদ জামাতের প্রস্তুতি । জাতীয় ঈদ্গাহে সকাল সাড়ে ৮টায় ঈদ-উল-ফিতরের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এ ছাড়াও জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকারমে সকাল ৭টা থেকে পৌনে ১১টা পর্যন্ত মোট ৫ টি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। বায়তুল মোকাররম ছাড়াও রাজধানীর গুলশান সেন্ট্রাল মসজিদ, ধানমন্ডি ঈদ্গাহ জামে মসজিদ ও সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় সকাল ৮টায় ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদেও সকাল ৮টা ও ৯টায় ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে । এদিকে রাজধানীর বাইরে দেশের সর্ববৃহৎ ঈদ জামাত দিনাজপুর গোরএ শহীদ ময়দানে সকাল ৮টায় অনুষ্ঠিত হবে । এছাড়া কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া, চট্টগ্রামের জমিয়তুল ফালাহ ময়দান, রাজশাহী শাহ মখদুম (র:) কেন্দ্রীয় মসজিদ, খুলনা টাউন হল মসজিদ, সিলেট শাহী মসজিদ,বরিশালের হেমায়েত উদ্দিন ঈদ্গাহ এবং রংপুর কালেক্টর মসজিদে ঈদ জামাত সকাল সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠিত হবে। ঈদুল ফিতরের নামাজের আগে মুসলমানদের অবশ্যই ফিতরা আদায় করার বিধান রয়েছে। এই বিধান মেনে এবারও ইসলামিক ফাউন্ডেশন সর্বনিম্ন ও সর্বোচ্চ ফিতরার হার নির্ধারণ করে। এবার জনপ্রতি সর্বনিম্ন ফিতরা নির্ধারণ করা হয়েছে ৭০ টাকা। সর্বোচ্চ ফিতরার এই হার ধরা হয়েছে এক হাজার ৯৮০ টাকা

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ