নীলা ইউপি উপ-নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্ধের পর প্রচারণা শুরু


জাফর আলম গুরা, হ্নীলা []
টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদ উপনির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দের প্রচারণা শুরু করেছে প্রার্থীরা।
১০ জুলাই সকালে টেকনাফ উপজেলা নির্বাচন অফিসার বেদারুল ইসলামের কার্যালয়ে ২নং হ্নীলা ইউপি উপনির্বাচনে প্রতিদ্বন্দি চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্ধ দেওয়া হয়। আওয়ামী লীগ মনোনীত রাশেদ মাহমুদ আলী (নৌকা), মীর মোঃ জাহাঙ্গীর আলম (মোটর সাইকেল) ও জালাল উদ্দিন চৌধুরী (আনারস) প্রতীক পেয়ে স্ব-স্ব এলাকায় আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু করেছেন। এই ব্যাপারে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী রাশেদ মাহমুদ আলী বলেন, জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দলীয়ভাবে আমাকে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন দেওয়ায় আমি চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দিতা করছি। আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, মহিলালীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ অন্যান্য অঙ্গ-সংগঠন সমন্বিতভাবে কাজ করলে ইনশল্লাহ আগামী ২৫ জুলাই জনগণের রায়ে নৌকা প্রতীককে জয়ী করে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে পারবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এতেই অত্র ইউনিয়নের মরহুম এইচকে আনোয়ারের অসমাপ্ত উন্নয়ন কাজ সম্পন্ন করতে সক্ষম হবে বলে দাবী করেন তিনি। সাবেক চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন চৌধুরী বলেন,আমি দীর্ঘদিন ধরে অত্র ইউনিয়নের জনগণের সেবায় নিয়োজিত ছিলাম। তারাই আমার সম্পর্কে ভালো জানেন। অবাধ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হলে ইনশল্লাহ জনগণের রায়ে আমি বিজয়ী হব বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। মীর মোঃ জাহাঙ্গীর আলম বলেন,নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে যার ভোটাধিকার সে প্রয়োগ করতে পারলে ইনশল্লাহ আমি জয়ী হব বলে মত প্রকাশ করেন। উল্লেখ্য, চলতি বছরের গত ১৮ মার্চ সন্ধ্যায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের সাবরাং বাজারে নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য রাখার পর হঠাৎ অসুস্থ হয়ে চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার যাওয়ার পথে হ্নীলা ইউপি চেয়ারম্যান এইচকে আনোয়ার মৃত্যু বরণ করেন। স্থানীয় সরকার ইউনিয়ন পরিষদ বিধিমালা অনুযায়ী কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন গত ২৪ এপ্রিল ১২৪ নম্বর স্মারকমূলে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগে চেয়ারম্যানের পদ শূন্য ঘোষণার জন্য পত্র প্রেরণ করেন। স্থানীয় সরকার বিভাগের ইউনিয়ন পরিষদ-১ শাখার উপসচিব মোঃ ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী স্বাক্ষরিত ১৫.২১৩ নম্বর স্মারকে চলতি বছরের গত ১০জুন জারীকৃত এক আদেশে ২০০৯ সালের ইউনিয়ন পরিষদ আইনের ৩৩ (৩) ধারা অনুযায়ী হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের পদটি শূন্য ঘোষনা করে তফসিল ঘোষনা করেন।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।