বাহারছড়ায় ৮ বছরের শিশুর লাশ উদ্ধার

টেকনাফ প্রতিনিধি

টেকনাফ বাহারছড়ার উত্তর শিলখালীতে সাদিয়া সুলতানা ওম্মী নামের(৮) বছরের এক শিশু কন্যাকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ উঠেছে। সে স্থানীয় শফি উল্লাহর মেয়ে বলে জানা যায়। স্থানীয় সুত্রে জানা যায় গতকাল ২১ এপ্রিল সকাল ১০ টায় শফিউল্লাহ তার বাড়িতে কাজ করা স্থানীয় দিন মজুর ইউসুফের বাড়িতে নিহত সাদিয়াকে তার মজুরির পার্র্রিমিক হিসাবে ৫০০ টাকা ইউসুফের বাড়িতে তার বউয়ের কাছে দিতে পাঠায়। তবে সে সময় ইউসুফ শফিউল্লাহর বাড়িতে মজুরির কাজে ব্যস্ত ছিল বলে স্থানীয়রা জানান। পরবর্তীতে সন্ধা যাবত সাদিয়া বাড়িতে ফিরে না আসায় পিতা শফি শফিউল্লাহর সন্দেহ হয়, পরে ইউছুফের বাড়িতে খোঁজ খবর নেওয়ার পরও সাদিয়াকে না পেয়ে পিতা শফিউল্লাহ সারা রাত বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করতে থাকে, পরের দিন ২২ এপ্রিল অনেক খোঁজাখোঁজির পর এক পর্যায়ে স্থানীয় গভীর পাহাড়ে দুপুর ১টার দিকে সাদিয়ার লতা দিয়ে পেছানো ঝুলন্ত অবস্থায় রক্তাক্ত অর্ধগলিত লাশ পাওয়া যায়। পরে স্থানীয় বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ সদস্যরা সাদিয়ার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে পাঠায়, আর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দিন মজুর মোঃ ইউছুফকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে বলে জানা যায়। আর উক্ত ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বাহারছড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ কাঞ্চন কান্তি দাশ বলেন নিহত সাদিয়ার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে এবং প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ইউছুফ নামক এক ব্যক্তিকে ফাঁড়িতে আনা হয়েছে।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।