বিচ ম্যানেজমেন্ট কমিটির তহবিল নিয়ে লুৎফুন্নাহার বাপ্পির চ্যালেঞ্জ

সাম্প্রতিক সময়ে কক্সবাজার সি বিচ ম্যানেজমেন্ট কমিটির তহবিল নিয়ে ঢালাও ভাবে অভিযোগ উঠায় নিজের ব্যাপারে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছেন ঐ কমিটির সদস্য নারী নেত্রী লুৎফুন্নাহার বাপ্পি। এই বিষয়ে বিচ ম্যানেজমেন্ট কমিটির সদস্য বাপ্পি তার ফেইসবুকে লিখেছেন,- “অতীতের চেয়ে সী বীচ এর আয়ের উৎস (রাজস্ব ) গত দশ বছরে ৭০% বেড়েছে তা বহাল তবিয়তে জেলা প্রশাসক সহ যৌথভাবে (সী-বীচ ম্যানেজমেন্ট) ব্যাংকে আছে। এবং তা রাষ্ট্রীয় খাতে ব্যয় হয় কিন্তু কোন ব্যক্তি খাতে নয়। সী বীচ ম্যানেজমেন্টের কেউ যদি অবৈধভাবে টাকা হাতিয়ে নেন তা অবশ্যই ক্ষমার অযোগ্য। আমি সী-বীচ ম্যানজেন্ট কমিটির সদস্য হিসেবে বলতে চাই আমাকে কি কেউ অবৈধভাবে লেনদেন করতে শুনেছেন বা দেখেছেন? তা যদি হয়ে থাকে তবে প্রমাণ সহ তা উপস্হাপন করুন। ঢালাওভাবে পুরো কমিটিকে দোষারোপ করবেন না। সাহস থাকে তো নাম ও প্রমাণ সহ তুলে ধরুন। এতে অন্তত পক্ষে দোষী ব্যক্তি চিহ্নিত হবে।”সময়ে কক্সবাজার সি বিচ ম্যানেজমেন্ট কমিটির তহবিল নিয়ে ঢালাও ভাবে অভিযোগ উঠায় নিজের ব্যাপারে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছেন ঐ কমিটির সদস্য নারী নেত্রী লুৎফুন্নাহার বাপ্পি। এই বিষয়ে বিচ ম্যানেজমেন্ট কমিটির সদস্য বাপ্পি তার ফেইসবুকে লিখেছেন,- “অতীতের চেয়ে সী বীচ এর আয়ের উৎস (রাজস্ব ) গত দশ বছরে ৭০% বেড়েছে তা বহাল তবিয়তে জেলা প্রশাসক সহ যৌথভাবে (সী-বীচ ম্যানেজমেন্ট) ব্যাংকে আছে। এবং তা রাষ্ট্রীয় খাতে ব্যয় হয় কিন্তু কোন ব্যক্তি খাতে নয়। সী বীচ ম্যানেজমেন্টের কেউ যদি অবৈধভাবে টাকা হাতিয়ে নেন তা অবশ্যই ক্ষমার অযোগ্য। আমি সী-বীচ ম্যানজেন্ট কমিটির সদস্য হিসেবে বলতে চাই আমাকে কি কেউ অবৈধভাবে লেনদেন করতে শুনেছেন বা দেখেছেন? তা যদি হয়ে থাকে তবে প্রমাণ সহ তা উপস্হাপন করুন। ঢালাওভাবে পুরো কমিটিকে দোষারোপ করবেন না। সাহস থাকে তো নাম ও প্রমাণ সহ তুলে ধরুন। এতে অন্তত পক্ষে দোষী ব্যক্তি চিহ্নিত হবে।”

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ