ভাঙনে প্লাবিত নতুন এলাকা

কক্সবাজারের চকরিয়ায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের বেড়িবাঁধ ভেঙে মাতামুহুরী নদী থেকে লোকালয়ে তীব্র বেগে ঢলের পানি ঢুকে যাচ্ছে। এতে নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

বুধবার ভোরে চকরিয়া উপজেলার কোনাখালী ও বিএমচর ইউনিয়নের মধ্যবর্তী স্থান কইন্যারকুম নামক এলাকায় ওই বেড়িবাঁধ ভেঙে যায়।

চকরিয়ার উজানের দিকে কয়েকটি ইউনিয়নে বন্যার পানি কমে এলেও উপকূলীয় এলাকার কয়েকটি ইউনিয়নে বন্যার পানি বাড়ছে।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার কোনাখালী ও বিএমচর ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী স্থান কইন্যারকুম নামক এলাকায় মাতামুহুরী নদীর তীরের বেড়িবাঁধ প্রায় ১৫ মিটার ভেঙে গেছে। ওই ভাঙন দিয়ে মাতামুহুরী নদী থেকে তীব্র বেগে লোকালয়ে পাহাড়ি ঢলের পানি ঢুকে যাচ্ছে।

এলাকাবাসী জানান, ওই ভাঙনটি দিয়ে পানি ঢুকে বিএমচর, কোনাখালী, পূর্ব বড়ভেওলা ও ঢেমুশিয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় চলে যাচ্ছে।

কক্সবাজার পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী সাবিবুর রহমান জানান, ভাঙনটি আগে থেকে ঝুঁকিপূর্ণ ছিল। পানি উন্নয়ন বোর্ডের শাখা কর্মকর্তা ও কর্মীরা এখনও সেখানে আরও ব্যাপক ভাঙন রোধে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

এ ছাড়া বন্যার পানি মাতামুহুরী নদীর উজানের দিকে সুরাজপুর-মানিকপুর, কাকারা ও লক্ষ্যারচরে কিছুটা উন্নতি হয়েছে। তবে উপকূলীয় এলাকার দিকে নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।