রোহিঙ্গাদের দেখতে আসছে মেসি!

ফুটবলের জাদুঘর আর্জেন্টাইন সুপার স্টার লিওনেল মেসি। অন্য সবার মতোই দু’পা নিয়ে জন্ম মেসির। অন্য দশজন সুস্থ, স্বাভাবিক ফুটবলারের মতোই তিনি কিন্তু তারপরও পার্থক্য রয়েছে। তার পায়ের জাদু দিয়ে নিজেকে সারাবিশ্বে পরিচিত করেছেন মেসি। দেখতে তার পা জোড়া অন্য মানুষের মতো হলেও তার পা জোড়া অন্যদের পায়ের মতো নয়। পা তো নয়, যেন জাদুর বাক্স।

৭ বছর আগে ২০১১ সালের ৫ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশে এসেছিল ফুটবলের এই জদুঘর। নাইজেরিয়ার বিপক্ষে একটি আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচ খেললেন, জয় করলেন, চলে গেলেন। ঐ প্রীতি ম্যাচে আর্জেন্টিনা ৩-১ গোলে জয়লাভ করে। সেই মেসি ফের আসছে বাংলাদেশে। তবে কোনো ম্যাচ খেলতে আসছেন না তিনি। মেসি ইউনিসেফের অ্যাম্বাসেডর হিসেবে কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির পর্যবেক্ষণের জন্য বাংলাদেশে আসবে বলে জানা গেছে। সম্ভাব্য তারিখ হতে পারে চলতি মাসের ২২ জুলাই৷ কক্সবাজারে তিনি ৪ ঘন্টা সময় কাটাবেন বলে জানা গেছে। এ নিয়ে ইতোমধ্যে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তোড়জোড় শুরু হয়েছে। বিভিন্ন ধরণের আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে। তবে এ বিষয়ে ইউনিসেফের বাংলাদেশের কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে আজ শুক্রবার (১৩ জুলাই) অফিস বন্ধ থাকায় তাদের কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, রাশিয়া বিশ্বকাপে খুব ভালো করতে পারেনি মেসির আর্জেন্টিনা। ফুটবল প্রেমিরাও এবারের বিশ্বকাপে মেসি জাদু দেখতে পারেনি। দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যায় মেসিরা।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।