সংরক্ষিত আসনে এমপি হতে চান লুৎফন্নাহার বাপ্পী

নিজস্ব প্রতিবেদক:
একাদশ সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের ঢামাডোল শুরু হয়ে গেছে। ইতিমধ্যে এই প্রক্রিয়ায় মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ চলছে। এই প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অংশ নিতে যাচ্ছেন কক্সবাজারের স্বনামধন্য নারী নেত্রী লুৎফুন্নাহার বাপ্পী। তিনি এই নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন। এই প্রতিবেদকের সাথে এক আলাপচারিতায় তিনি একথা জানান।

একজন রাজনীতিবিদের প্রধান লক্ষ্য থাকে জনপ্রতিনিধি হওয়া। সে ধারা থেকে ব্যতিক্রম লুৎফুন্নাহার বাপ্পীও। তিনি রাজনৈতিক জীবনে সব সময় মানুষের জন্য রাজনীতি করেছেন। মানুষের জন্য সার্বক্ষণিক কাজ করেছেন। এই মানবসেবার প্রক্রিয়াকে আরো প্রসার করতে এবার তিনি সংরক্ষিত আসন থেকে নারী সাংসদ হতে চান বলে জানা লুৎফুন্নাহার বাপ্পী।

লুৎফুন্নাহার বাপ্পী কক্সবাজারের একজন সুপরিচিত নারী নেত্রী। তিনি কক্সবাজার জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। পাশপাশি কক্সবাজার বীচ ম্যানেজমেন্ট কমিটির একমাত্র নারী সদস্য। শিক্ষিত ও মার্জিত ব্যক্তিত্ব হিসেবে তাঁর বেশ সুনামও রয়েছে। দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে তিনি আওয়ামী লীগের জন্য অনেক কাজ করেছেন। বিএনপি-জামায়াতের অরাজকতাসহ দেশ বিরোধী নাশকতার প্রতিরোধে সব সময় রাজপথে থেকে প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তিনি তিনি রাজনীতির পাশপাশি একজন সমাজসেবক হিসেবেও বেশ পরিচিত। কক্সবাজারের নানা সামাজিক ও মানবিক সংগঠনের সাথে যুক্ত থেকে মানুষের জন্য নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন। এছাড়াও তিনি ২০০৮ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত বেসরকারি কারা পরিদর্শকের দায়িত্ব ছিলেন লুৎফুন্নাহার বাপ্পী। সেই তিনি অনেক অনেক অসহায় কারাবন্দীকে সহযোগিতা করে আলোচনায় এসেছিলেন।

লুৎফুন্নাহার বাপ্পী সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলে জনমানুষের সামগ্রিক উন্নয়ন হবে বলে আশা ব্যক্ত করেছেন সাধারণ মানুষ। তারা বলছেন, লুৎফুন্নাহার বাপ্পীর রাজনৈতিক জীবনের বলিষ্ঠ ভূমিকার পাশাপাশি, মানুষের জন্য কাজ করারও ব্যাপক অভিজ্ঞতা রয়েছে। সাংসদ নির্বাচিত হলে তিনি সেই অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নযাত্রায় অবদান রাখতে সক্ষম হবেন।

এ ব্যাপারে লুৎফুন্নাহার বাপ্পী বলেন, ‘নারী হয়েও জনমানুষের জন্য কাজ করা যায় তা প্রমাণ করতেই আমি রাজনীতিতে এসেছি। জাতির বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনপ্রারিণত আমাকে আওয়ামী লীগের রাজনীতি ব্যাপক উৎসাহ জোগায়। জননেত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নযাত্রায় শামিল হয়ে নারীর অধিকারসহ সকল স্তরের জনগণের কল্যাণের জন্যই আমার পথচলা। সে লক্ষ্যকে আরো প্রসারিত করতে আমি সংরক্ষিত নারী আসনে মনোনয়প্রত্যাশী। আশা করি নেত্রী আমাকে মূল্যায়ন করবেন।’

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।