সেন্টমার্টিনদ্বীপে টেকনাফ সাংবাদিক ইউনিটির শীত বস্ত্র বিতরণ

নুর মোহাম্মদ, সেন্টমার্টিনদ্বীপ থেকে = সাংবাকিদরা উদয়াস্ত খবরের পেছনে নিরন্তর ছুটে চলা এবং আনন্দ ভ্রমণে গিয়ে ¯্রফে সময় কাটানো নয়, এরা মানুষের কল্যাণে এবং দুঃস্থদের কথা ভাবে তা সেন্টমার্টিন দ্বীপে প্রমাণ করে গেলেন টেকনাফ সাংবাদিক ইউনিটি। যা সেন্টমার্টিনদ্বীপের ইতিহাসে বিরল দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।
টেকনাফ সাংবাদিক ইউনিটি সেন্টমার্টিনদ্বীপে আয়োজন করে ২ ও ৩ জানুয়ারী ২ দিনের বার্ষিক বনভোজন ও আনন্দ ভ্রমণ। কোন ব্যক্তি সংগঠন সংস্থা আনন্দ ভ্রমণের আয়োজন করলে শুধু আনন্দ-ফুর্তি করেই সময় কাটিয়ে দেয়। এ ক্ষেত্রে টেকনাফ সাংবাদিক ইউনিটি ছিল ব্যতিক্রম। তাঁরা সেন্টমার্টিনদ্বীপে আনন্দ ভমণে এসে ভুলেননি দুঃস্থ অসহায়দের কথা। ভুলেননি স্থানীয় নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের। ২ দিনের আনন্দ ভ্রমণে ২ দিনই ছুটেছেন দুঃস্থ অসহায়দের কাছে। সাথে সম্পৃক্ত করেছেন স্থানীয় নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের।
২ জানুয়ারী মঙ্গলবার বাদে মগরিব টেকনাফ সাংবাদিক ইউনিটির সকল সদস্য বিশ্রাম না করে শীত বস্ত্র নিয়ে উপস্থিত হন দ্বীপের বড় মাদ্রাসা খ্যাত ইসলামিয়া রহমানিয়া মাদ্রাসা হেফজখানা ও এতিমখানায়। সাথে ছিলেন সেন্টমার্টিনদ্বীপ ইউপি চেয়ারম্যান ও সেন্টমার্টিনদ্বীপ বিএন ইসলামিক হাইস্কুল এন্ড কলেজ গভর্ণিং বডির সভাপতি আলহাজ্ব নুর আহমদ। ইসলামিয়া রহমানিয়া মাদ্রাসা হেফজখানা ও এতিমখানার অসহায় শিশুদের মাঝে মাদ্রাসার পরিচালক (মুহতমিম) হাফেজ মাওঃ আবুল হোছাইন, শিক্ষকবৃন্দ মাওঃ আবদুর রহমান, মাওঃ ইসমাইল, মাওঃ আফছার উদ্দিন, মাওঃ আয়াতুল্লাহসহ সকল শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের উপস্থিতিতে শীত বস্ত্র বিতরণ করা হয়।
৩ জানুয়ারী প্রথমে পুর্বপাড়া ইসলামিক সেন্টার হেফজখানা ও এতিমখানা, এরপর পশ্চিমপাড়া বায়তুচ্ছালাম হেফজখানা ও এতিমখানা এবং সর্বশেষ কুনাপাড়া নুরানী মাদ্রাসায় গিয়ে অসহায় শিশুদের হাতে শীত বস্ত্র তুলে দেন। স্থানীয় মেম্বার নজরুল ইসলাম, আবু বকর ছিদ্দিক, মুহতমিম (পরিচালক) মাওঃ ইসমাইল, মুহতমিম (পরিচালক) হাফেজ মাওঃ হেলাল উদ্দিন, মাওঃ আবু তাহের, হাফেজ রুহুল আমিন, হাফেজ রফিক, মাওঃ শাহেদ আলম, মাওঃ জাফর হোছন, মাওঃ নুরুল কবির, হাফেজ বাহার উদ্দিন, মাওঃ শাকের, ইমাম মাওঃ তৈয়ব, আবদুর রাজ্জাক, টেকনাফ সাংবাদিক ইউনিটির প্রধান উপদেষ্টা দৈনিক পূর্বকোণ দৈনিক দিনকাল ও দৈনিক ইনানীর প্রতিনিধি হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, উপদেষ্টা দৈনিক প্রথম আলোর গিয়াস উদ্দিন, উপদেষ্টা জিয়াউল করিম জিয়া, সভাপতি সাইফুল ইসলাম সাইফী, সিনিয়র সহ-সভাপতি দৈনিক সমকালের আবদুর রহমান, সহ-সভাপতি ছৈয়দুল আমিন চৌধুরী, সেক্রেটারী নুরুল হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক হেলাল উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহফুজুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম মাহমুদ, অর্থ সম্পাদক মোহাম্মদ সেলিম, দপ্তর ও প্রচার সম্পাদক সাইফুদ্দিন মোহাম্মদ মামুন, সদস্য যথাক্রমে এটিএন ফায়সাল, এম আমান উল্লাহ আমান, আবুল আলী, নুর হাকিম আনোয়ার, নুরতাজুল মোস্তফা শাহিনশাহ, মোঃ রাশেদুল করিম, জাহাঙ্গীর আলম, হারুন সিকদার, শাহ মিসবাহুল হক চৌধুরী বাবলা, আবদুল কাইয়ুম, আমান ওয়াহিদ, নুর মোহাম্মদ (সেন্টমার্টিনদ্বীপ), জয়নাল আবেদীন(সেন্টমার্টিনদ্বীপ), রহিম উল্লাহ, কেফায়ত উল্লাহ খান (সেন্টমার্টিনদ্বীপ) এসময় উপস্থিত ছিলেন। শীত বস্ত্র পেয়ে অসহায় শিক্ষার্থীদের অভিব্যক্তি ও আনন্দ-উচ্ছ্বাস ছিল দেখার মতো। তারা ‘আলহামদুলিল্লাহ-আলহামদুলিল্লাহ’ ধ্বনিতে মুখরিত করে তুলে মাদ্রাসা প্রাঙ্গণ। তারা প্রাণ ভরে দু’য়া করেন টেকনাফ সাংবাদিক ইউনিটির জন্য, বিশেষতঃ ‘আমরা ৬ জন’ দের জন্য।
উল্লেখ্য, সেন্টমার্টনদ্বীপের ইতিহাসে একটি সাংবাদিক সংগঠনের জন্য এ ধরণর সেবামুলক কর্মসুচী এটাই সর্বপ্রথম। ##

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।