সেন্টমার্টিনে সমুদ্র এলাকা হতে ১২ কেজি গাঁজা ও ৩৫ হাজার পিস ইয়াবা জব্দ

বাংলাদেশ কোস্টগার্ড বাহিনীর সদস্যরা টেকনাফের সেন্টমার্টিনদ্বীপের ছেড়াদ্বীপ সংলগ্ন সাগরে অভিযান চালিয়ে গাঁজা ও ইয়াবার চালান উদ্ধার করেছে। তবে মাদক চোরাকারবারীরা পালিয়ে যাওয়ায় আটক করা সম্ভব হয়নি।

বাংলাদেশ কোস্টগার্ড বাহিনীর মিডিয়া কর্মকর্তা লেঃ (বিএন) খন্দকার মুনিফ তকি জানান, মিয়ানমার হতে মাদকের চালান পাচারের গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ২০ নভেম্বর ভোররাত পৌনে ৩টার দিকে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড দক্ষিণ—পূর্ব জোনের বিসিজি স্টেশন টেকনাফ স্টেশন কমান্ডার লেঃ কমান্ডার এম নাঈম উল হক বিশেষ টহল দল নিয়ে সেন্টমার্টিনের ছেঁড়াদ্বীপ সংলগ্ন সাগরে অভিযানে যায়। এসময় একটি বোটকে দাড়ানোর জন্য চ্যালেঞ্জ করে।

তারা কোস্টগার্ডের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চালায়। তখন বোটটি ধাওয়া করলে ২টি সাদা রংয়ের প্লাষ্টিকের বস্তা সমূেদ্রে ফেলে দিয়ে মায়ানমার সিমান্তের দিকে পালিয়ে যায়।

 

পরে কোস্টগার্ড সদস্যগণ সাগর থেকে ভাসমান অবস্থায় বস্তা ২টি উদ্ধার করে কোস্টগার্ড ষ্টেশনে নিয়ে গণনা করে ১২ কেজি গাঁজা ৩৫ হাজার পিস ইয়াবা পাওয়া যায়। জব্দকৃত গাঁজা ও ইয়াবা পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ