সেন্টমার্টিন পরিবহনের এসি বাসে নাফ নদী, বার্মা আর সেন্টমার্টিন দ্বীপ

বউ আমাকে ছেড়ে চলে গেছে। আমিও দুম করে অফিস থেকে ৩ দিনের ছুটি নিলাম, ভাবছি কোথায় যাওয়া যায়। আচ্ছা সেন্টমার্টিন ঘুরে আসিনা কেন। যেই কথা সেই কাজ যেদিন বউ আর ছেলে চলে গেল, সেদিনই বিকালে নটরডেম কলেজের সামনে সেন্টমার্টিন পরিবহন এর কাউন্টার থেকে ১২ নভেম্বর রাতের টিকেট কিনলাম। যথাসময়ে উপস্থিত হলাম। গাড়ী ছাড়ল বেশ কিছুক্ষণ পর ছাড়ল। কাচপুর ব্রীজ পার হয়েই চাকা পাংচার। বুঝলাম কপাল সুবিধের না……অনেক কষ্টে সৃষ্টে সকাল নয়টায় টেকনাফের আগে কেযারী সিনবাদ ঘাট। কিন্তু এর মধ্যেই কত রকমের চিটারী বাটপারী দেখলাম তা আর এখানে বলে সময় নষ্ট করছিনা, এ নিয়ে আরেকটা পোষ্ট দেয়া যাবে। আমার সাথে ব্যাকপ্যাক, পায়ে স্পঞ্জের স্যান্ডেল, থ্রি কোয়ার্টার আর গেঞ্জি এবং আমার সাধের ক্যামেরা Canon SX50hs। সকালে গাড়ী থেকে নেমেই ক্লিক শুরু করলাম, দু’দিন ছিলাম। হাজার খানেক ছবি তুলেছি। এখানে তার কিছু শেয়ার করলাম। বেশ কিছু পর্ব করা যাবে এ ছবিগুলোকে নিয়ে। প্রতিটি ছবির উপরে ছবি সংক্রান্ত তথ্য দেয়া আছে। তো দেখতে থাকুন….
http://i.imgur.com/EBajqZ9l.jpg

http://i.imgur.com/f9E8rhGl.jpg
জেটিতে দাড়িয়ে আছে কেয়ারী ক্রুইজ এন্ড ডাইন, এর ওপাশেই এক সাথে বাধা আছে কেয়ারী সিনবাদ। আমার টিকেট কেয়ারী সিনবাদে। এখানে একটু তথ্য দিয়ে রাখি। কেয়ারী সিনবাদে তিন ধরনের টিকেট দেয় (১) ভিআইপি/৮০০ (২) ওপেন ডেক/৭০০ (৩) আন্ডার ডেক/৫৫০। কখনো ওপেন ডেক টিকেট কিনবেন না, হয় ভিআইপি নয় আন্ডার ডেক কারণ আন্ডার ডেকের টিকেট কেটেও ওপেন ডেকে আরামসে ভ্রমণ করা যায়। এটা এক ধরণের ভন্ডামি মাত্র। হ্যাঁ ভিআইপি অংশের সার্ভিস আলাদা।
http://i.imgur.com/uuyBZ3Al.jpg
দুরের জেটিতে দাড়িয়ে আছে এলসিটি কুতুবদিয়া। সবচে ভাল, সেফ আর দ্রুতগামী। পারলে এটাতে যাবেন। তবে প্যাসেঞ্জার কম হলে যে কোন একটা যায়, হয় কুতুবদিয়া অথবা সিনবাদ
http://i.imgur.com/MuMCstRl.jpg
সকালের শান্ত স্নিগ্ধ নাফ নদী, কোন নদী এত সুন্দর হতে পারে তা আগে জানা ছিলনা
http://i.imgur.com/KVTcoRbl.jpg
নাফ নদীর কোলে দাড়িয়ে আছে পাহাড়, এ সৌন্দর্য্য আমার এ দেশের, কেন যেনো বিদেশ বিদেশ মনে হয়।
http://i.imgur.com/Nk5lEn9l.jpg
কেয়ারী ক্রুইজ এন্ড ডাইন দুরে দাড়িয়ে, জাহাজ ছেড়ে দিয়েছে, নাফ নদী বেয়ে দক্ষিণে যাত্রা শুরু।
http://i.imgur.com/4nvAHs6l.jpg
জাহাজের পেছনে ফেনায়িত জলরাশি। সম্ভবত লবণাক্ত পানিতে বেশী ফেনা হয়। আমার ধারণা মাত্র, ভুলও হতে পারে।
http://i.imgur.com/I9icsawl.jpg
মায়ানমার থেকে আসা কাঠের তৈরী কার্গো বোট
http://i.imgur.com/eDz7oqEl.jpg
নাফ নৌবন্দর, এ বন্দর দিয়েই বার্মা থেকে সকল পণ্য আমদানী হয়
http://i.imgur.com/Nc1vvgml.jpg
অপুর্ব সৌন্দর্য্যের দেশ আমার এ বাংলাদেশ, দুরে কোষ্টগার্ডের ঘাঁটি।
http://i.imgur.com/k1SwCr3l.jpg
জাহাজের পিছু নিয়েছে গাংচিলের দল, চিপসের লোভে। এক দুর্লভ দৃশ্য
http://i.imgur.com/W4MqRc4l.jpg
100x জুমে তোলা বৌদ্ধদের প্যাগোডা, এটা বার্মা অংশে।
http://i.imgur.com/8GqGbfHl.jpg
100x জুমে তোলা নাসাকা বাহিনীর চৌকি। আজব ব্যাপার হচ্ছে বাংলাদেশ অংশে কোথাও কোন চৌকি বা কাটাতারের বেড়া চোখে পড়েনি কিন্তু বার্মা অংশে সিকিউরিটির চরম ব্যবস্থা।পুরো চরকে কাটাতার দিয়ে ঘিরে দিয়েছে। একটু পরপরই চৌকি। মনটা খারাপ হয়ে গেল সরকারের অব্যবস্থাপনা দেখে।
http://i.imgur.com/b0ct5aVl.jpg
বার্মিজ জেলেরা মাছ ধরছে
http://i.imgur.com/mCjyW1Vl.jpg
বার্মিজ ইয়া বড় শিপ যাচ্ছে নাফ বন্দরে
http://i.imgur.com/MDS1BnIl.jpg
জেটিতে ভিড়েছে সিনবাদ। নামছে সবাই। কিন্তু আমি নেমেছি সবার আগে, অনেকটা লাফ দিয়ে, শুধু ক্লিক করার জন্য
http://i.imgur.com/wPBtfByl.jpg
ঘাটে নেমেই দু’পাশেই বেশ কিছু শুটকির দোকান
http://i.imgur.com/EjUWgUAl.jpg
মৎস আহরণ শেষে ঘরে ফেরা
http://i.imgur.com/opXwpJtl.jpg
মাঝ সাগরে দাড়িয়ে আছে বানৌজা তুরাগ, কোন কাজ আছে বলে মনে হলনা। এরচে দু একটা পেট্রোল বোট টহল দিচ্ছে দেখলে খুশি হতাম।
http://i.imgur.com/QX6zMf8l.jpg
জেটির পাশেই শুটকি চাতাল
http://i.imgur.com/wml3wRGl.jpg
সেন্টমার্টিনের অভ্যন্তরে আমার দেখা একমাত্র পুকুর, প্রধান সড়কের পাশেই। আরো তিন চারটি দেখেছি আছে তবে সেগুলোকে ঠিক পুকুর বলা যাবেনা, কারণ গভীরতা হাটু সমান মাত্র। সেদিক থেকে এটিই একমাত্র পুকুর।
http://i.imgur.com/5S6jLbSl.jpg
সেন্টমার্টিনের প্রধান হাইওয়ে
http://i.imgur.com/LWzDMT4l.jpg
কেয়া ফল, দেখতে সুন্দর কিন্তু কাজের কিছু না
http://i.imgur.com/9oKU64Vl.jpg
দ্বীপের দক্ষিণে যাওয়ার দুর্গম পথ। উল্লেখ্য যে, ঠিক এ জায়গাটিতে দ্বীপের প্রস্থ মাত্র কয়েক মিটার। আমার দেখা সবচে সুন্দর জায়গা
http://i.imgur.com/lpRwGeUl.jpg
সরলতা, এ শিশুটি আমাকে ডাব কেটে খাইয়ে ছিল
http://i.imgur.com/7mk7AHOl.jpg
আবারো কেয়া ফল
http://i.imgur.com/WVCcCQhl.jpg
ডাব কাটা হচ্ছে আমার জন্য, এই সৈকতটিতে সাধারণত পর্যটকরা যান না দুর্গম হওয়ার কারণে।
http://i.imgur.com/gWgDNjol.jpg
আজ এক ফুল, এর নাম নাকি বকুল। স্থানীয় ভাবে জানা। শুইনা হাসুম না কান্দুম বুঝতে পারতাছিনা
http://i.imgur.com/ewEi0u9l.jpg
শেষ বিকেলে পুবের বীচ
http://i.imgur.com/04oP2Jil.jpg
ছুরি মাছকে ছুরি দিয় ফালা হচ্ছে, শুটকির জন্য
http://i.imgur.com/UhERKVEl.jpg
মজার বিষয় হচ্ছে সেন্টমার্টিনের কুত্তাগুলাও মাঝে মাঝে জলকেলি করে। আজীবন দেখছি কুত্তা পানি দেখলে পালায় কিন্তু এখানে উল্টা
http://i.imgur.com/UntbYzFl.jpg
চলছে অজানার উদ্দ্যেশে, দুরে দাড়িয়ে তুরাগ
http://i.imgur.com/8f9hwial.jpg
ভয়াবহ একটা পোকা, মশার চাইতে শতগুন বিরক্তিকর। কামড়ালে পরে জ্বালা করে। ছবিটি ২০০এক্স জুমে তোলা
http://i.imgur.com/nlnb9c9l.jpg
জেলী ফিশ তবে র্নিবিষ
http://i.imgur.com/pW6m8P9l.jpg
ওরে মাছ, মাছরে
http://i.imgur.com/MvBtds9l.jpg
মাত্রই ধরা পড়া টেক চান্দা, লাফাচ্ছে এখনো
http://i.imgur.com/CzVf1eAl.jpg
তাজা সামুদ্রিক মাছ
http://i.imgur.com/FkOEPWxl.jpg
এবার পশ্চিমের বীচে, সুর্য্য লাল হয়ে উঠেছে
http://i.imgur.com/vDK9XPHl.jpg
এই ফাঁকে কাকড়া ভাজা খেয়ে নিলাম। শুধু স্বাদটা চেখে দেখার জন্য কিন্তু আমার কাছে জঘন্য বলে মনে হয়েছে বিশেষ করে রান্না করার পরিচ্ছন্নতার বিষয়ে। তদুপরি দামের সাথে সাইজেরও সামঞ্জস্যতা নেই।
http://i.imgur.com/TARhOwhl.jpg
এবার নেমে যাচ্ছে
http://i.imgur.com/67fG6S1l.jpg
সন্ধ্যার ঠিক আগে পশ্চিম আকাশকে রাঙিয়ে দিয়ে আসছে অচেনা আগন্তুক। ছবিটি ২০০ এক্স জুমে তোলা
http://i.imgur.com/eTKVbvUl.jpg
এই যাহ এবার তো ডুবেই গেল
http://i.imgur.com/8mpQ15tl.jpg

শেষ হলো আমার প্রথম দিন। এদিনে খুব বেশী তুলিনি। পরের দিন খুব সকালে সাইকেল ভাড়া করে চলে গেলাম দ্বীপের যে অংশগুলোতে সাধারণত পর্যটকরা যায়না সেখানটায়। পরের পর্বে থাকবে সেই ছবিগুলো….

ওহহো বলাই হয়নি, সকালে গাড়ী থেকে নামার সাথে সাথেই বউ ফোন দিল। ছেলে নাকি বাবা বলে কাঁদছে। আসল কথা হলো আমি সেন্টমার্টিন গিয়েছি শুনে মাথায় বাজ। কারণ আমাদের একসাথে সেন্টমার্টিন যাওয়ার কথা ছিল। চান্সটা মিস হয়ে গেল কিনা। যাও এবার বাপের বাড়িতে বেড়াতে আমাকে একা ফেলে। শোধবোধ, কাটাকাটি।

ভালো থাকবেন সবাই, অনেক ভালো

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।