হোয়াইক্যংয়ে দু’পক্ষের সন্ত্রাসী হামলায় গুলিবিদ্ধ-১:আহত-২


সাদ্দাম হোসাইন,হ্নীলা।
হোয়াইক্যংয়ে ইয়াবা ব্যবসায়ী দুই গ্রুপের মধ্যে হামলা ও পাল্টা হামলায় এক ইয়াবা ব্যবসায়ী গুলিবিদ্ধ হয়ে অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এসময় নুরুল কবির গংয়ের হামলায় প্রতিপক্ষের দুই নারী,শিশু আহত হয়েছে বলে জানা গেছে।
জানা যায়,২জুলাই দুপুর দেড়টায় উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের অবৈধ অস্ত্র মওজুদ এবং ব্যবহারের“ডেরা” হিসেবে পরিচিত নয়াবাজার সাতঘরিয়া পাড়ায় জাফর আলম জরুর পুত্র ইয়াবা ব্যবসায়ী নুরুল কবির (২৪)কে দোকানে বসা অবস্থায় অপর ইয়াবা ব্যবসায়ী নুরুল ইসলামের পুত্র হাবিবুল্লাহ গং গুলিবর্ষণ করে পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থল হতে গুলিবিদ্ধ নুরুল কবিরকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়েছে। এলাকাবাসী জানায়,সংঘর্ষে জড়িত উভয় পরিবারের লোকজন ইয়াবা চোরাচালানে জড়িত।কতিপয় প্রভাবশালীদের ইন্ধনে তারা প্রায় সময়ে কথায় কথায় প্রকাশ্যে অবৈধ অস্ত্রের ব্যবহার করে জনজীবনকে আতংকিত করে তুলে। সাধারণ মানুষ এসব অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সাড়াঁশি অভিযান দাবী করেন।
এই ব্যাপারে গুলিবিদ্ধ নুরুল কবিরের পিতা জাফর আলম জরু বলেন,এলাকার পার্শ্ববর্তী বন্ধ একটি দোকানে আমার ছেলে নুরুল কবির দাড়িয়ে থাকলে হাবিবুল্লাহরা ৩জন এসে গুলি করে পালিয়ে যায়। অভিযুক্ত হাবিব উল্লাহর সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে মুঠোফোন বন্ধ থাকায় বক্তব্য পাওয়া না গেলেও স্বজনেরা নুরুল কবির গংয়ের হামলায় নুর নাহার বেগম ও রহমত উল্লাহ নামে দুইজন আহত হয়েছে বলে দাবী করেন।
স্থানীয় মেম্বার ও প্যানেল চেয়ারম্যান রাকিব আহমেদ বলেন,আমি বাহিরে রয়েছি। তবে লোকজন মারফতে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের কথা শুনেছি। এই ব্যাপারে জানতে চাইলে হোয়াইক্যং ফাঁড়ির আইসি নির্মলেন্দু চাকমা বলেন,পূর্ব শত্রুতা ও আধিপত্য বিস্তারের জেরধরে এই ঘটনার সুত্রপাত। বিষয়টি তদন্ত স্বাপেক্ষে পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।