হ্নীলায় প্রবাসীর স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টার ঘটনায় আটক-২

হ্নীলায় প্রবাসীর স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টার ঘটনায় জনতার সহায়তায় আটক-২

হ্নীলায় প্রবাসীর স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টার ঘটনায় অভিযুক্ত দেবরসহ দুইজনকে জনতার সহায়তায় আটক পুলিশে সোর্পদ করা হয়েছে।
স্থানীয় সুত্র জানায়,৩জুলাই (শনিবার) ভোরের দিকে হ্নীলা দক্ষিণ লেদা শিয়াইল্যাঘোনার জনসাধারণ মিলে স্থানীয় মালয়েশিয়া প্রবাসী দিল মোহাম্মদের স্ত্রী এবং ৩জন কন্যার জননী ফাতেমা বেগম প্রকাশ শুননী (৩৬) কে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা চেষ্টার ঘটনায় অভিযুক্ত দেবর মৃত বশির আহমদের পুত্র হোসেন আহমদকে বসত-বাড়ির পরিত্যক্ত ল্যাট্টিনের ভেতর থেকে এবং কে মৃত নুরুল ইসলামের পুত্র আবুল হোছন (৩৮) কে নয়াপাড়া বিজিবি ক্যাম্প সংলগ্ন এলাকা হতে আটক করে স্থানীয় সংরক্ষিত মহিলা মেম্বাররের বাড়িতে বেঁধে রাখে। পরে টেকনাফ মডেল থানা পুলিশকে খবর দিলে এসআই রাফি সর্ঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে এসে আটককৃতদের থানায় নিয়ে যায়।
উল্লেখ্য,গত ১লা জুলাই (বৃহস্পতিবার) সকাল ৬টারদিকে হ্নীলা দক্ষিণ লেদা শিয়াইল্যাঘোনার মালয়েশিয়া প্রবাসী দিল মোহাম্মদের স্ত্রী এবং ৩জন কন্যার জননী ফাতেমা বেগম প্রকাশ শুননী (৩৬) প্রস্রাব-পায়খানা সেরে বাড়ির সামনে এলে তার দেবর হোসেন আহমদ কোন কথা ছাড়াই এলোপাতাড়ি কুপাতে থাকে। তার শোর-চিৎকারে প্রতিবেশী এবং আতœীয়-স্বজন এসে রক্তাক্ত ও মূমুর্ষাবস্থায় প্রবাসীর স্ত্রীকে উদ্ধার করে নয়াপাড়া টিডিএস হাসপাতালে প্রেরণ করে। অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় সেখান হতে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়। সেখান হতে এখনো জেনারেল হাসপাতালে মূমুর্ষাবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছে। আহতের পিতা গুরা মিয়া জানান, আমার মেয়েকে পরিকল্পিতভাবে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে।
এই ব্যাপারে গত ২রা জুলাই ভোরে ধৃত ২জনসহ ৬/৭ জনকে আসামী করে আহতের পিতা গুরা মিয়া বাদী হয়ে অভিযোগ দায়ের করেন। এরই প্রেক্ষিতে জনতার সহায়তা পুলিশ এই দুইজনকে আটক করে নিয়ে যায়। ###

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ