২ লাখ ইয়াবাসহ আটক স্ত্রী কারাগারে,পলাতক স্বামী র‌্যাবের সঙ্গে গুলাগুলিতে নিহত


নুর হাকিম আনোয়ার,টেকনাফ
কক্সবাজারের টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে গুলাগুলির ঘটনায় ২ লাখ পিস ইয়াবা মামলার পলাতক আসামী সলিমুল্লাহ(৩৫) নিহত হয়েছেন। সে টেকনাফ পৌরসভার ইসলামাবাদ(নতুন পল্লানপাড়ার) এলাকার মৃত নজির আহমদের ছেলে। ৩ জুলাই রাত ২ টার দিকে উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের উত্তর শীলখালী এলাকায় গুলিবিনিময়ের ঘটনা ঘটে। এসময় ঘটনাস্থল থেকে ২টি এলজি, ৪ রাউন্ড কার্তুজ, ৩ রাউন্ড কার্তুজের খোসা, ১০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় দুই র‌্যাব সদস্য আহত হয়েছে।
র‌্যাব-১৫ টেকনাফ ক্যাম্পের ইনচার্জ লেফটেন্যান্ট কর্নেল মির্জা শাহেদ মাহতাব জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন ২ লাখ পিস ইয়াবা মামলার পলাতক আসামী নিহত সলিমুল্লাহ তার দলবল নিয়ে ইয়াবা খালাসের জন্য জড়ো হচ্ছিলেন। এসময় তার দলের সদস্যরা র‌্যাব দলের উপর লক্ষ্য করে অতর্কিত গুলিবর্ষণ করে, র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়।
পরে ঘটনাস্থল থেকে ২- ৩ জন তার সহযোগী পালিয়ে যায় এবং গুলিবিদ্ধ সলিমুল্লাহর মৃতদেহ, দু’টি এলজি, ৪ রাউন্ড কার্তুজ, ৩ রাউন্ড কার্তুজের খোসা ও ১০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত সমিমুল্লাহ টেকনাফ মডেল থানার ৮১/৩০৭ নং মাদক মামলার পলাতক আসামী।
তিনি আরো জানান- সম্প্রতি র‌্যাবের রুজু করা মামলার পলাতক আসামীদের আটকের অভিযান অব্যহত রয়েছে। এছাড়া সরকারের জিরো ট্রলারেন্স নীতির আলোকে চলো যাই যুদ্ধে- মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান আরো বেগবান থাকবে ।
উল্লেখ্য- গত ২৭ এপ্রিল মধ্যরাতে টেকনাফ পৌরসভার ইসলামাবাদ এলাকায় নিহত ছলিম উল্লাহর বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ২ লাখ পিস ইয়াবাসহ তার স্ত্রী সাবেকুন নাহারকে আটক করে । সে বর্তমানে এখন কারাগারে আছেন।এরপর থেকে স্বামী সমিমুল্লাহ পলাতক রয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।