একাদশে ভর্তি : আগামী ১৯ ও ২০ জুন ২য় পর্যায়

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তিতে প্রথম দফায় আবেদন করা শিক্ষার্থীদের ফল প্রকাশ করা হয়েছে। প্রথম ধাপে একাদশে ভর্তিতে মনোনয়ন পেয়েছে ১৩ লাখ ১৮ হাজার ৮৬৬ জন। এবার বৈধ আবেদন ছিল ১৪ লাখ ১৫ হাজার ৮৭৬ জনের। এই হিসাবে ৯৭ হাজার ১০ জন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তির সুযোগ পায়নি। যদিও এসব শিক্ষার্থীর পরে আবেদন করার সুযোগ আছে। রোববার রাতে ভর্তি সংক্রান্ত ওয়েবসাইটে (http://www.xiclassadmission.gov.bd/) ফল প্রকাশ করা হয়। ঢাকা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক অধ্যাপক মো. হারুন-আর-রশিদ জানান, প্রথম ধাপে ভর্তির জন্য মনোনয়ন পেয়েছে ১৩ লাখ ১৮ হাজার ৮৬৬ জন। আগামী ১১ জুন থেকে ১৮ জুনের মধ্যে ভর্তি নিশ্চিত করতে হবে। ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কর্মকর্তারা জানান, মূলত এসএসসি ও সমমানের ফল অনুযায়ী যাদের যেসব প্রতিষ্ঠানে প্রাপ্যতা ছিল, সেখানে আবেদন না করে অন্য প্রতিষ্ঠানের আবেদন করার কারণেই এ পর্যায়ে প্রায় এক লাখ শিক্ষার্থী কোনো প্রতিষ্ঠানে ভর্তির সুযোগ পায়নি। তবে দ্বিতীয় পর্যায়ে তারা আবেদন করতে পারবে। তখন সব শিক্ষার্থী ভর্তির সুযোগ পাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তাঁরা। জানা গেছে, প্রথম দফায় মনোনীতদের ১১ জুন থেকে ১৮ জুনের মধ্যে ভর্তি নিশ্চিত করতে হবে। আর এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে টেলিটক বা মোবাইল ব্যাংকিং রকেট ও শিওর ক্যাশের মাধ্যমে বোর্ডের রেজিস্ট্রেশন ফি ১৯৫ টাকা পরিশোধ করতে হবে। এই প্রক্রিয়ায় ভর্তি নিশ্চিত করতে না পারলে মনোনয়ন বাতিল হয়ে যাবে। তার আবেদনটিও বাতিল হয়ে যাবে। গত ২৩ মে শেষ দিন পর্যন্ত ৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড ও একটি মাদরাসা বোর্ডের অধীনে থাকা কলেজগুলোতে ভর্তির জন্য মোট আবেদন করেন প্রায় ১৪ লাখ ভর্তিচ্ছু। এদের মধ্যে অনলাইনে আবেদন করেছে ১০ লাখ ৩৯ হাজারের বেশি এবং এসএমএসের মাধ্যমে ৩ লাখ ৬৫ হাজারের বেশি ভর্তিচ্ছুক। শুধু ঢাকা বোর্ডেই ৩ লাখ ৯৫ হাজারের বেশি ভর্তিচ্ছুক একাদশে ভর্তির আবেদন করেছেন। উল্লেখ্য, আগামী ১৯ ও ২০ জুন ২য় পর্যায়ের আবেদন গ্রহণ করা হবে। আগামী ২১ জুন রাত ৮টার পর ২য় পর্যায়ে নির্বাচিতদের ফল প্রকাশ করা হবে। ২২ ও ২৩ জুন ২য় পর্যায়ের সিলেকশন নিশ্চায়ন করতে হবে।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।