জেটির বেহাল দশায় টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌপথে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল শুরু হচ্ছে

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ … আবহাওয়া স্বাভাবিক থাকলে ১ নভেম্বর শুক্রবার থেকে টেকনাফ-সেন্টমার্টিনদ্বীপ নৌপথে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল শুরু হবে। সোমবার ২৮ অক্টোবর রাত ১০টায় সেন্টমার্টিন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ নুর আহমদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। বর্তমানে টেকনাফের দমদমিয়া জেটি ঘাটে কেয়ারী সিন্দাবাদ, এমভি ফারহান ক্রুজ ও এলসিটি কুতুবদিয়া এ ৩টি পর্যটকবাহী জাহাজ অপেক্ষমান রয়েছে।
বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডবিøউটিএ) চট্টগ্রাম বিভাগের উপ-পরিচালক নয়ন শীল বলেন, ‘চলতি মৌসুমে এ নৌপথে চলাচলের জন্য ৫টি জাহাজ অনুমতি চেয়েছে। এর মধ্যে গত ২৩ অক্টোবর ৩টি জাহাজকে আগামী বছরের ১৫ মার্চ পর্যন্ত চলাচলের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। কিন্তু কি কারণে এখনও জাহাজ চলাচল শুরু হয়নি তা জানিনা। হয়তো নভম্বরের শুরু থেকে জাহাজগুলো চলাচল শুরু করতে পারে। অনুমতি পাওয়া জাহাজ তিনটি হচ্ছে কেয়ারি সিন্দাবাদ, দ্য আল্টানিক ক্রুজ ও এমভি ফারহান ক্রুজ’।
টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌপথে পর্যটকবাহী জাহাজ কেয়ারী সিন্দাবাদের ব্যবস্থাপক শাহ আলম বলেন, ‘বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডবিøউটিএ) চট্টগ্রাম বিভাগের উপ-পরিচালক চলতি মৌসুমে এ নৌপথে চলাচলের জন্য এ পর্যন্ত ৩টি জাহাজের অনুমতি দিলেও এখনও স্থানীয় প্রশাসন থেকে অনুমতি মিলেনি। তবে আশা করছি অনুমতি প্রাপ্তি সাপেক্ষে ১ নভেম্বর থেকে জাহাজ চলাচল শুরু করতে পারব’।
টেকনাফের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ রবিউল হাসান বলেন, ‘সাগর এখনও উত্তাল থাকায় স্থানীয় প্রশাসন ও জেলা প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞার কারণে এতদিন জাহাজ চলাচল বন্ধ ছিল। আবহাওয়া ভালো থাকলে নভেম্বর থেকে আবার পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। জাহাজে অতিরিক্ত যাত্রী বহন করলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবেনা’।
সেন্টমার্টিন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ নুর আহমদ বলেন, ‘পর্যটকদের বরণে দ্বীপে পর্যটক ব্যবসায়ীরা হোটেল ও কটেজগুলো সাজিয়ে রেখেছেন। জাহাজ চলাচলের খবর দ্বীপে পৌঁছানোর পর সব শ্রেণি পেশার মানুষের মধ্যে প্রাণ চাঞ্চল্য ফিরেছে। তবে বর্তমানে জেটির অবস্থা খুবই কাহিল। পর্যটকবাহী জাহাজ ভিড়ার উপযোগী নয়। জেটি এবং পল্টুন উভয়টির খুব খারাপ অবস্থা। বিষয়টি নিয়ে টেকনাফ উপজেলা মাসিক উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভায় একাধিকবার উত্থাপন করা হলেও জেলা পরিষদ থেকে এখনও জেটি মেরামতের উদ্যোগ নেয়া হয়নি’। ##

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।