সচেতনতাই পারে তীব্র ডায়রিয়াজনিত মৃত্যু রোধ করতে-টেকনাফে বক্তারা


টেকনাফ প্রতিনিধি
ডায়রিয়ার কারণে শিশুমৃত্যু প্রতিরোধে সচেতনতা সৃষ্টির ওপর বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে টেকনাফে ডায়রিয়া বিষয়ে সচেতন করতে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
৪ নভেম্বর সকাল ১০ টায় উপজেলা পরিষদ থেকে একটি বিশাল র‌্যালী বের হয়ে পৌর এলাকার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। র‌্যালী শেষে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে ইউনিসেফের সহযোগিতায় রেডিও নাফের ষ্টেশন ম্যানেজার সিদ্দিক হোসেনের পরিচালনায় উপজেলা স্বাস্থ্য ও প: প: কর্মকর্তা ডাঃ সুমন
বড়–য়ার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন-টেকনাফ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল আলম, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো: আবুল মনসুর, উপজেলা প্রোগ্রাম অফিসার (শিক্ষা) মো: আরিফ হোসেন, একলাব ম্যালেরিয়া প্রকল্পের ম্যানেজার জিয়াউল হক সরকারসহ অনেকে।
র‌্যালী শেষে আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন- খোলা আকাশের নিচে মলমূত্র ত্যাগের ফলে, মানুষ বিশেষ করে শিশুরা ডায়রিয়াসহ অন্যান্য পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়ে অকালে প্রাণ হারাচ্ছে, আমাদের একটু সচেতনতায় এই মৃত্যু রোধ করা সম্ভব।
যা কোন মানুষের ২৪ ঘন্টার মধ্যে তিন বা ততোধিক বার তরল বা পাতলা পায়খানা ও বর্মি হলে লজ্জা না পেয়ে, গোপন না রেখে, অন্যকে প্রকাশ করতে হবে এবং বিশেষ করে সাবান বা বিশুদ্ধ পানি দিয়ে হাত ধোঁয়া, খাদ্যদ্রব্য ঢেকে রাখা, খাদ্য সবসময় গরম করে খাওয়া, খাবার ও রান্নার সময় নিরাপদ পানি ব্যবহার করা, অ্যাকোয়াট্যাব না থাকলে পানি ফুঁটিয়ে খাওয়াসহ খাওয়ার আগে, মলমূত্র পরিস্কার করার পরে, শিশুকে খাওয়ানোর আগে, মলত্যাগের পরে, খাবার তৈরী করার আগে সাবান ও বিশুদ্ধ পানি দিয়ে হাত ধোঁয়তে হবে।
ডায়রিয়া প্রতিরোধে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ডায়রিয়া প্রতিরোধে শিশুকে নিয়ম মেনে শালদুধসহ মায়ের দুধ, স্বাভাবিক খাবার, শিশুর পায়খানা স্বাস্থ্যসম্মত পায়খানায় ফেলা, হামের টিকা দেওয়া, পায়খানা ব্যবহার ও খাওয়ার আগে ও পরে ভাল করে সাবান দিয়ে হাত ধোয়া এবং জিংক খাওয়াতে হবে। ডায়রিয়া হলে ঘন ঘন পাতলা পায়খানার কারণে শরীর থেকে লবন ও পানি জাতীয় পদার্থ বেরিয়ে যায়। সঙ্গে সঙ্গে প্রতিরোধের ব্যবস্থা না নিলে শিশু মারাও যায়। তাই বেশি করে তরল খাবার (খাবার স্যালাইন, ভাতের মাড়, বিশুদ্ধ পানি ইত্যাদি), বুকের দুধ ও স্বাভাবিক খাবার দিতে হবে এবং পাতলা পায়খানা না কমলে দ্রুত হাসপাতালে নিতে হবে।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।