টেকনাফে হোম কোয়ারাইন্টাইনে থাকা বিদেশ ফেরত লোকদের মধ্যে ফল বিতরণ

হোম কোয়ারাইন্টাইনে থাকা বিদেশ ফেরত লোকদের মধ্যে ফল পৌঁছিয়ে দিচ্ছেন চেয়ারম্যান রাশেদ মাহমুূদ আলী

হোম কোয়ারাইন্টাইনে থাকা বিদেশ ফেরত জনসাধারণের মধ্যে নিজ হাতে ফল পৌঁছিয়ে দিচ্ছেন হ্নীলা ইউপির চেয়ারম্যান রাশেদ মাহমুদ আলী। ২৫ মার্চ বুধবার দুপুরে তিনি ব্যাক্তিগত পক্ষ থেকে বিদেশ ফেরত লোকদের মাঝে ফলফলাদি পৌঁছিয়ে দেন। এদিকে করোনায় শুরু থেকে চেয়ারম্যান রাশেদ মাহমুদ আলী জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে মাইকিং,লিফলেট বিতরনসহ প্রশংনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করেন। তিনি বিদেশ ফেরত হোম কোয়ারাইন্টাইনে থাকা লোকদের নিয়মিত খোঁজ খবর নিচ্ছেন। যেন বিদেশ ফেরতরা সরকারী নির্দেশনা মেনে সঙ্গ নিরোধ থাকেন। এছাড়া তিনি জনসাধারণকে অপ্রয়োজনে বাইরে ঘুরাঘুরি না করে নিরাপদে বাড়ীতে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। এদিকে চেয়ারম্যান রাশেদের এমন উদ্যোগে সচেতন লোকজন তাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। এছাড়া টেকনাফ উপজেলার সেন্টমার্টিন দ্বীপে নিজের বাড়িতে সঙ্গরোধে (হোম কোয়ারেন্টাইন) থাকা দুবাই প্রবাসী মোহাম্মদ আলমের জন্য ফল পাঠিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. সাইফুল ইসলাম।

মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) বিকেলে  সেন্টমাটিন এক প্রবাসীর বাড়িতে আপেল, কমলা, জুস, মাল্টা, আঙ্গুর প্যাকেট পাঠান। আর সেটি তুলে দেন দ্বীপের সংবাদকর্মী  জয়নাল আবেদীন।

 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইউএনও মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, প্রবাস থেকে এসে যারা বাড়িতে সঙ্গরোধে রয়েছেন, তাদের অনুপ্রাণিত করতে আমি এ উদ্যোগ নিয়েছি। যাতে তারা অনুভব করেন যে আমরা তাদের পাশে আছি। সব জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে উপজেলা প্রশাসন বাড়িতে সঙ্গরোধে থাকা ব্যক্তিদের এমন ফল পাঠাবে।

প্রসঙ্গত, দুবাই থেকে সম্প্রতি দেশে ফেরেন মোহাম্মদ আলম। এরপর প্রশাসনের নির্দেশে তিনি নিজ বাড়িতে সঙ্গরোধে আছেন।

বি: দ্র – জয়নালের নাম আড়াল করতে নিউজটি এভাবে করা হয়েছে। এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান কিছু জানিও না ।
ফলগুলো জয়নাল নিজের হাতে তুলে দিয়েছে । সাংবাদিক ইউনিটির নাম বলাই তাদের জ্বলে ওঠে ।
তার মধ্যে আমাদেরও একজন কুখ্যাত সাংবাদিক রয়েছে ।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ