টেকনাফে ধর্ষণের চেষ্টা ব্যর্থ হয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত-৩ : বেপরোয়া শীল কবির বাহিনী

টেকনাফে ধর্ষণের চেষ্টা ব্যর্থ হয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত-৩ : বেপরোয়া শীল কবির বাহিনী

নিজস্ব প্রতিনিধি:

টেকনাফ উপজেলার সদর ইউনিয়নের হাবিবছড়া পাহাড়ি এলাকায় এক বিধবা মহিলাকে ধর্ষণের চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় ৩ মহিলা গুরুতর আহত হয়েছে। এ ঘটনায় টেকনাফ মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে জানায় ভুক্তভোগী হতদরিদ্র পরিবার।

অভিযোগকারী বিধবা তাহেরা বেগম জানান- তার স্বামী ফরিদ আলম মৃতুর পর ৫ কন্যা সন্তান নিয়ে পাহাড়ের পাদদেশে ঝুপড়ি ঘরে বসবাস করে আসছে। এসময় স্থানীয় চিহ্নিত ইয়াবা ব্যবসায়ী শীল কবির আহমদ (৪০) ২৬ জুন জুমাবার রাত ৩ টার সময় তার বাড়িতে কৌশলে প্রবেশ করিয়া জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এসময় তার শৌরচিৎকারে বাড়িতে থাকা মেয়েরা ঘুম থেকে উঠে তাকে আটকানোর চেষ্টা করে। তখন সে পালিয়ে যায়।

সকালে বিষয়টি স্থানীয়দের জানালে ক্ষিপ্ত হয়ে ওইদিন বিকালে কবির আহমদ প্রকাশ শীল কবির বাহিনীর নেতৃত্বে তার ভাই আমান আলী (৫০) নির্দেশে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের হাবিবছড়ার মৃত নুর উদ্দিনের ছেলে কবির আহমদ (৪৫), তার ভাই জবরমুল্লুক (৫০), কালু মিয়া প্রকাশ এমা কালু (৫৫), কবির আহমদের ছেলে সাইফুল ইসলাম (২২), হাসিম উল্লাহ (২৯), কালু মিয়া প্রকাশ এমা কালুর স্ত্রী সকিনা খাতুন (৩৫), কবির আহমদের দুই স্ত্রী মাবিয়া আক্তার (৪০), লালু বেগম (৫০)সহ অজ্ঞাত আরো ৪/৬জন দেশীয় অস্ত্র হাতে নিয়ে বিধবার বাড়ীতে প্রবেশ করিয়া অতর্কিত হামলা ও লুটপাট চালায়।

তিনি এসময় সাংবাদিকদের জানান, হাবির ছড়া এলাকার কবির আহমদ প্রকাশ শীল কবির বাহিনীর লেলিয়ে দেওয়া সন্ত্রাসীদের অত্যাচার ও নির্যাতনের শিকার ও প্রাণ নাশের হুমকিতে পালিয়ে বেড়াচ্ছে বিধবা ওই পরিবার। ২৭ জুন বিকালে স্থানীয় সাংবাদিকদের এমন অভিযোগ করেন কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন নির্যাতিত ওই বিধবা মহিলার কন্যারা।

স্থানীয় এক ব্যত্তি নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন শীল কবির একজন লম্পট, সন্ত্রাস ও মাদক কারবারী। তার মাদক কারবার ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করতে রয়েছে অস্ত্রধারী একটি সন্ত্রাসী বাহিনী।

তাহেরা বৃদ্ধ পিতা, ওমর হাকিম জানান, শীল কবির ও তার লেলিয়ে দেওয়া সন্ত্রাসীদের প্রাণনাশের হুমকির কারণে ঘরবাড়ি ছেড়ে খেয়ে না পালিয়ে বেড়াচ্ছে তার বিধবা কন্যা ও নাতিনরা। তিনি উক্ত ঘটনান সুস্থ তদন্ত পুর্বক জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পুলিশ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

স্থানীয় গ্রাম পুলিশ আলী আহমদ জানান, ঘটনার খবর পেয়ে সোলতান আহমদ সহ অন্যান্যদের সহযোগিতায় তাদের কে উদ্ধার করে চিকৎসার জন্য প্রেরণ করি।

অভিযুক্ত কবির আহমদ প্রকাশ শীল কবির সাথে ঘটনার বিষয়ে জানতে একাধিক বার তার মুঠোফোনে কল করা হলেও সংযোগ পাওয়া যায়নি।

স্থানীয় মেম্বার ওমর হাকিমের সাথে যোগাযোগ করলে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ